ঢাকা ১২:০৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এক কোটি ষাট লাখ ছেলে-মেয়ের স্কুলের খরচ বহন করেন মেসি

ডেস্ক রিপোর্টঃ আর্জেন্টিনার জয়ের মূল স্থপতি লিওনেল মেসিকে নিয়ে একটি তথ্যসমৃদ্ধ লাইব্রেরিরও পথ চলা শুরু হচ্ছে। এই লাইব্রেরি সূত্রে জানা গেছে, মেসি ভারতীয় মুদ্রায় তিনশ’ কোটি টাকা আয় করেন বছরে। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ভারতীয় মুদ্রায় তিন হাজার তিনশ’ কোটি টাকা। মেসির বাড়িটির মূল্য আটান্ন কোটি টাকা। গ্যারেজে দশটি গাড়ি ছাড়াও মেসির আছে একটি ষোলো সিটারের প্লেন। এই বিমানে আছে দুটি জায়ান্ট শোবার ঘর, একটি কিচেন ও দুটি টয়লেট।
কিন্তু, জানেন কি মেসি ফোর্বস ম্যাগাজিনের হিসেব অনুযায়ী বিশ্বের প্রথম পঞ্চাশ জন দাতার মধ্যে একজন? না জানলে জেনে নিন। ইউনেস্কোর চারিটেবল ট্রাস্টের ৪৮ শতাংশ চলে মেসির দানে। ১৭৯টি দেশে মেসির টাকায় চলে ৯ হাজার ৮৪৭টি স্কুল।

মেসি এক কোটি ষাট লাখ ছেলে-মেয়ের স্কুলের খরচ বহন করেন। দেড় কোটি পথশিশুর দায়িত্ব তিনি নিয়েছেন। ভারতের বারসার যুব উন্নয়ন প্রকল্পে তিনি নিয়মিত দান করে থাকেন।

২০১৮ সালে মেসি আর্জেন্টিনার রাশিয়া বিশ্বকাপে যাওয়ার ব্যয় একাই প্রায় নির্বাহ করেছিলেন। বিশ্বকাপ থেকে পাওয়া তাঁর ম্যাচ ফি’র বেশির ভাগটা তিনি দান করেন আর্জেন্টিনার বিভিন্ন হাসপাতালে। এতটাই শিশুপ্রিয় মেসি যে ইসরায়েলের শিশু হত্যাকারীদের সম্পর্কে তিনি বলেন- আমি ওদের ঘৃণা করি। এই হলেন লিও মেসি। মাঠের বাইরেও যিনি অনন্য।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

এক কোটি ষাট লাখ ছেলে-মেয়ের স্কুলের খরচ বহন করেন মেসি

আপডেট সময় ০৫:৫৯:১৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২২

ডেস্ক রিপোর্টঃ আর্জেন্টিনার জয়ের মূল স্থপতি লিওনেল মেসিকে নিয়ে একটি তথ্যসমৃদ্ধ লাইব্রেরিরও পথ চলা শুরু হচ্ছে। এই লাইব্রেরি সূত্রে জানা গেছে, মেসি ভারতীয় মুদ্রায় তিনশ’ কোটি টাকা আয় করেন বছরে। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ভারতীয় মুদ্রায় তিন হাজার তিনশ’ কোটি টাকা। মেসির বাড়িটির মূল্য আটান্ন কোটি টাকা। গ্যারেজে দশটি গাড়ি ছাড়াও মেসির আছে একটি ষোলো সিটারের প্লেন। এই বিমানে আছে দুটি জায়ান্ট শোবার ঘর, একটি কিচেন ও দুটি টয়লেট।
কিন্তু, জানেন কি মেসি ফোর্বস ম্যাগাজিনের হিসেব অনুযায়ী বিশ্বের প্রথম পঞ্চাশ জন দাতার মধ্যে একজন? না জানলে জেনে নিন। ইউনেস্কোর চারিটেবল ট্রাস্টের ৪৮ শতাংশ চলে মেসির দানে। ১৭৯টি দেশে মেসির টাকায় চলে ৯ হাজার ৮৪৭টি স্কুল।

মেসি এক কোটি ষাট লাখ ছেলে-মেয়ের স্কুলের খরচ বহন করেন। দেড় কোটি পথশিশুর দায়িত্ব তিনি নিয়েছেন। ভারতের বারসার যুব উন্নয়ন প্রকল্পে তিনি নিয়মিত দান করে থাকেন।

২০১৮ সালে মেসি আর্জেন্টিনার রাশিয়া বিশ্বকাপে যাওয়ার ব্যয় একাই প্রায় নির্বাহ করেছিলেন। বিশ্বকাপ থেকে পাওয়া তাঁর ম্যাচ ফি’র বেশির ভাগটা তিনি দান করেন আর্জেন্টিনার বিভিন্ন হাসপাতালে। এতটাই শিশুপ্রিয় মেসি যে ইসরায়েলের শিশু হত্যাকারীদের সম্পর্কে তিনি বলেন- আমি ওদের ঘৃণা করি। এই হলেন লিও মেসি। মাঠের বাইরেও যিনি অনন্য।