ঢাকা ১১:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কক্সবাজার পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে একাধিক প্রার্থীর দৌড়ঝাঁপ

কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাচনে মনোনয়নের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে ঢাকায় অবস্থান করছে একাধিক প্রার্থী। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ পর্যন্ত ৬ প্রার্থী কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

যথাক্রমে তারা হলেন, কক্সবাজার পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের ২বারের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, প্যানেল মেয়র ও তিনবারের কাউন্সিলর মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী (মাবু), কক্সবাজার পৌরসভার প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মরহুম এ কে এম মোজাম্মেল হকের পুত্র কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক মাসেদুল হক রাশেদ, কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক চারবারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবছার, বর্ষিয়ান ও মেধাবী রাজনীতিক মরহুম এডভোকেট জহিরুল ইসলামের পুত্র সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রাশেদুল ইসলাম, সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান ও পৌর কমিশনার আব্দুল খালেক,
উল্লেখিত সকলেই দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার আবেদন জমা দিয়েছেন।

ঢাকায় অবস্থান করা কক্সবাজারের আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের বরাতে জানা গেছে, মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে আছেন বর্তমান মেয়র মুজিবুর রহমানও মনোনয়ন দৌড়ে পিছিয়ে নেই। তার সময়ে ৩শ ৫০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ হয়েছে বলে দাবী তার সমর্থকদের। এছাড়াও জেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তাই তাকেও দল বিবেচনায় আনতে পারে।

অন্যদিকে দৌড়ের মধ্যে আরো এগিয়ে আছে মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী (মাবু), অপেক্ষাকৃত কম বয়স এবং ভারপ্রাপ্ত মেয়র থাকাকালে তিনি অবৈধ দখল উচ্ছেদে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন। এছাড়াও দোকান মালিক ফেড়ারেশনের সভাপতি হিসেবে বিশাল একটি ভোট ব্যাংক তার পক্ষে কাজ করবে ফলে বিজয় অনেকটা সহজ হবে।

তবে নৌকার মনোনীত প্রার্থী হিসেবে সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল আবছারও ভালো ফলাফল করবে বলে মনে করেন বিশ্লেষকেরা। কেননা নিরাপদ ও মেধাবী নেতৃত্ব চায় পৌরবাসী, তাই পৌরবাসীর এমন চাহিদাও পেতে পারে প্রাধান্য।

অন্যদিকে মাসেদুল হক রাশেদও বেশ কয়েক বছর ধরে পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে লড়াই করার ঘোষনা দিয়ে আসছেন। প্রার্থী হিসেবে তিনিও শক্ত অবস্থানে আছেন।

অন্যদিকে রাশেদুল ইসলাম পূর্বে পৌর নির্বাচনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান এবং দলের হাই কমান্ড তাকে বিবেচনা করতে পারেন বলে বিশ্বাস তার অনুসারীদের।

এদিকে একসময় স্থানীয়ভাবে পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ছিলেন আব্দুল খালেক। তিনি মনোনয়ন পেতে আগ্রহী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দলীয় মনোনয়ন যদি নতুন কাউকে দেয়া হলে সে ক্ষেত্রে মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী (মাবু) প্রাধান্য পেতে পারে আর যদি অপরিবর্তিত থাকে তবে বর্তমান মেয়র মুজিবুর রহমান শেষ মেষ নৌকার মাঝি হিসেবে নির্বাচনে তরী ভাসাবেন এমনটাই বলছেন দলের সিনিয়র নেতাকর্মীরা।

১৮ এপ্রিল বাংলাদেশ আওয়ামীরলীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তারপর নিশ্চিত হওয়া যাবে কে হবেন কক্সবাজার পৌর নির্বাচনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী।

৫বছর পর আগামী ১২ জুন অনুষ্ঠিত হবে কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচন।

আপলোডকারীর তথ্য

কক্সবাজার পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে একাধিক প্রার্থীর দৌড়ঝাঁপ

আপডেট সময় ০২:০৮:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ এপ্রিল ২০২৩

কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাচনে মনোনয়নের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে ঢাকায় অবস্থান করছে একাধিক প্রার্থী। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ পর্যন্ত ৬ প্রার্থী কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

যথাক্রমে তারা হলেন, কক্সবাজার পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের ২বারের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, প্যানেল মেয়র ও তিনবারের কাউন্সিলর মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী (মাবু), কক্সবাজার পৌরসভার প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মরহুম এ কে এম মোজাম্মেল হকের পুত্র কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক মাসেদুল হক রাশেদ, কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক চারবারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবছার, বর্ষিয়ান ও মেধাবী রাজনীতিক মরহুম এডভোকেট জহিরুল ইসলামের পুত্র সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রাশেদুল ইসলাম, সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান ও পৌর কমিশনার আব্দুল খালেক,
উল্লেখিত সকলেই দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার আবেদন জমা দিয়েছেন।

ঢাকায় অবস্থান করা কক্সবাজারের আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের বরাতে জানা গেছে, মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে আছেন বর্তমান মেয়র মুজিবুর রহমানও মনোনয়ন দৌড়ে পিছিয়ে নেই। তার সময়ে ৩শ ৫০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ হয়েছে বলে দাবী তার সমর্থকদের। এছাড়াও জেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তাই তাকেও দল বিবেচনায় আনতে পারে।

অন্যদিকে দৌড়ের মধ্যে আরো এগিয়ে আছে মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী (মাবু), অপেক্ষাকৃত কম বয়স এবং ভারপ্রাপ্ত মেয়র থাকাকালে তিনি অবৈধ দখল উচ্ছেদে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন। এছাড়াও দোকান মালিক ফেড়ারেশনের সভাপতি হিসেবে বিশাল একটি ভোট ব্যাংক তার পক্ষে কাজ করবে ফলে বিজয় অনেকটা সহজ হবে।

তবে নৌকার মনোনীত প্রার্থী হিসেবে সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল আবছারও ভালো ফলাফল করবে বলে মনে করেন বিশ্লেষকেরা। কেননা নিরাপদ ও মেধাবী নেতৃত্ব চায় পৌরবাসী, তাই পৌরবাসীর এমন চাহিদাও পেতে পারে প্রাধান্য।

অন্যদিকে মাসেদুল হক রাশেদও বেশ কয়েক বছর ধরে পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে লড়াই করার ঘোষনা দিয়ে আসছেন। প্রার্থী হিসেবে তিনিও শক্ত অবস্থানে আছেন।

অন্যদিকে রাশেদুল ইসলাম পূর্বে পৌর নির্বাচনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান এবং দলের হাই কমান্ড তাকে বিবেচনা করতে পারেন বলে বিশ্বাস তার অনুসারীদের।

এদিকে একসময় স্থানীয়ভাবে পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ছিলেন আব্দুল খালেক। তিনি মনোনয়ন পেতে আগ্রহী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দলীয় মনোনয়ন যদি নতুন কাউকে দেয়া হলে সে ক্ষেত্রে মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী (মাবু) প্রাধান্য পেতে পারে আর যদি অপরিবর্তিত থাকে তবে বর্তমান মেয়র মুজিবুর রহমান শেষ মেষ নৌকার মাঝি হিসেবে নির্বাচনে তরী ভাসাবেন এমনটাই বলছেন দলের সিনিয়র নেতাকর্মীরা।

১৮ এপ্রিল বাংলাদেশ আওয়ামীরলীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তারপর নিশ্চিত হওয়া যাবে কে হবেন কক্সবাজার পৌর নির্বাচনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী।

৫বছর পর আগামী ১২ জুন অনুষ্ঠিত হবে কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচন।