ঢাকা ০২:২১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লা মাদক, ভারতীয় ঔষুধ ও দুইটি গাড়ীসহ ০৫ মাদক ও চোরাকারবারি গ্রেফতার

বুধবার ভোরে জেলা গোয়েন্দা শাখার কুমিল্লার একটি টিম বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে কোতয়ালী মডেল থানাধীন দূর্গাপুর এলাকায় চেকপোষ্ট করাকালীন সময়ে একটি প্রাইভেটকার তল্লাশী করে ১০ কেজি গাঁজা, ২০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেন।

এসময় কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানাধীন কাটাবিল গ্রামের রিপন মিয়ার ছেলে মোঃ রিফাত (২০)কে গ্রেফতার করে। অপর আরেকটি টিম রাত সাড়ে ৩ টার সময় চৌদ্দগ্রাম থানাধীন কিং সফুয়া এলাকায় চেকপোষ্ট করাকালীন সময়ে একটি পিকআপ তল্লাশী করে ২০ (বিশ) কেজি গাঁজা ও বিপুল পরিমান ভারতীয় ঔষুধসহ জেলার সদর দক্ষিণ থানার বারপাড়া গ্রামের মোঃ অহিদ মিয়ার ছেলে রবিউল হাসান (১৮), বড় ধর্মপুর গ্রামের মোঃ স্বপন মিয়ার ছেলে মোঃ রানা (১৮) ও শিবপুর গ্রামের মোঃ মোস্তফার ছেলে রিপন (৩০) এবং চৌদ্দগ্রাম থানার জগমোহনপুর গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মোঃ নবীর হোসেন নবী (৪২) দুই জনকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, উল্লেখিত মাদকদ্রব্য গাঁজা, ফেন্সিডিল এবং ভারতীয় ঔষুধ আমদানি শুল্ক ফাঁকি দিয়ে ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকা হতে স্বল্প মূল্যে ক্রয় করে অধিক মূল্যে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে।
আসামী মোঃ নবীর হোসেন নবী (৪২) এর বিরুদ্ধে ২৬টি মামলা এবং রিপন (৩০) এর বিরুদ্ধে ২২ টি মামলা রয়েছে মর্মে জানা যায়।

উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ও বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ঔষুধ উদ্ধার সংক্রান্তে কোতয়ালী মডেল থানার মামলা নং- ৬০, ধারা- ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৩৬ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৩৬(১) এর টেবিল ১৯(খ) ও চৌদ্দগ্রাম থানার মামলা নং-২৭, ১) এর টেবিল ১৯(খ)/১৪(খ) এবং চৌদ্দগ্রাম থানার মামলা নং-২৭, ধারা- ২০১৮ সালের ধারা- ১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-বি এর ১ (বি) রুজু করা হয়।
মাদককারবারী, চোরাকারবারী এবং গডফাদারদের গ্রেফতার ও সনাক্ত করনে পুলিশ সুপার কুমিল্লা এর নির্দেশনা মোতাবেক অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে পুলিশ সূত্রে যানা যায়।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কুমিল্লা মাদক, ভারতীয় ঔষুধ ও দুইটি গাড়ীসহ ০৫ মাদক ও চোরাকারবারি গ্রেফতার

আপডেট সময় ১১:৪২:৫৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১২ এপ্রিল ২০২৩

বুধবার ভোরে জেলা গোয়েন্দা শাখার কুমিল্লার একটি টিম বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে কোতয়ালী মডেল থানাধীন দূর্গাপুর এলাকায় চেকপোষ্ট করাকালীন সময়ে একটি প্রাইভেটকার তল্লাশী করে ১০ কেজি গাঁজা, ২০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেন।

এসময় কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানাধীন কাটাবিল গ্রামের রিপন মিয়ার ছেলে মোঃ রিফাত (২০)কে গ্রেফতার করে। অপর আরেকটি টিম রাত সাড়ে ৩ টার সময় চৌদ্দগ্রাম থানাধীন কিং সফুয়া এলাকায় চেকপোষ্ট করাকালীন সময়ে একটি পিকআপ তল্লাশী করে ২০ (বিশ) কেজি গাঁজা ও বিপুল পরিমান ভারতীয় ঔষুধসহ জেলার সদর দক্ষিণ থানার বারপাড়া গ্রামের মোঃ অহিদ মিয়ার ছেলে রবিউল হাসান (১৮), বড় ধর্মপুর গ্রামের মোঃ স্বপন মিয়ার ছেলে মোঃ রানা (১৮) ও শিবপুর গ্রামের মোঃ মোস্তফার ছেলে রিপন (৩০) এবং চৌদ্দগ্রাম থানার জগমোহনপুর গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মোঃ নবীর হোসেন নবী (৪২) দুই জনকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, উল্লেখিত মাদকদ্রব্য গাঁজা, ফেন্সিডিল এবং ভারতীয় ঔষুধ আমদানি শুল্ক ফাঁকি দিয়ে ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকা হতে স্বল্প মূল্যে ক্রয় করে অধিক মূল্যে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে।
আসামী মোঃ নবীর হোসেন নবী (৪২) এর বিরুদ্ধে ২৬টি মামলা এবং রিপন (৩০) এর বিরুদ্ধে ২২ টি মামলা রয়েছে মর্মে জানা যায়।

উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ও বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ঔষুধ উদ্ধার সংক্রান্তে কোতয়ালী মডেল থানার মামলা নং- ৬০, ধারা- ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৩৬ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৩৬(১) এর টেবিল ১৯(খ) ও চৌদ্দগ্রাম থানার মামলা নং-২৭, ১) এর টেবিল ১৯(খ)/১৪(খ) এবং চৌদ্দগ্রাম থানার মামলা নং-২৭, ধারা- ২০১৮ সালের ধারা- ১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-বি এর ১ (বি) রুজু করা হয়।
মাদককারবারী, চোরাকারবারী এবং গডফাদারদের গ্রেফতার ও সনাক্ত করনে পুলিশ সুপার কুমিল্লা এর নির্দেশনা মোতাবেক অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে পুলিশ সূত্রে যানা যায়।