ঢাকা ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কোন রকম বিশৃঙলা ছাড়াই চলছে ভোট গ্রহণ

সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায় শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। সরাইল সদর ইউনিয়ন, বড্ডাপাড়া, কালিকচ্ছ এলাকার কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে কোথাও কোন বিশৃঙলা চোখে পড়েনি। তবে ভোটার উপস্থিতি একেবারেই কম।

সরাইল আশুগঞ্জ এলাকার মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লক্ষ, ৭৩ হাজার, ১ শত ৪৮ জন। এরমধ্যে সরাইলে মোট ভোটার সংখ্যা রয়েছে ২ লক্ষ ৪০ হাজার ৯ শত ৯ জন ও আশুগঞ্জে রয়েছে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ২ শত ৩৯ জন।

সরাইলে ৮৪টি ও আশুগঞ্জ উপজেলায় ৪৮টিসহ মোট ১৩২ ভোট কেন্দ্রে ১ হাজার ১০০ পুলিশ সদস্য, র‍্যাবের ১০টি টিম, ৪ প্লাটুন বিজিবি এবং ১ হাজার ৫৮৪ জন আনসার সদস্য মোতায়েন রয়েছে । প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ১৭ জনের ফোর্স মোতায়েন আছে। এদের মধ্যে ১২ জন আনসার, দুইজন গ্রাম পুলিশ ও ৩ জন পুলিশ সদস্য রয়েছেন । ভোটে গ্রহণের পরেও তারা ৩ দিন নির্বাচনী এলাকায় দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানা গেছে।

এছাড়াও ৪ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাবের ১০টি টিম আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করছে। সরাইল আশুগঞ্জ ২ উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে একজন করে মোট ১৭ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ২ জন ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন।

উল্লেখ্যঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া -২ (সরাইল -আশুগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকায় ৪ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক দুইবারের সাংসদ এডঃ জিয়াউল হক মৃধা প্রতিদন্দিতা করার কথা থাকলেও তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাড়িয়েছেন। অন্য চার প্রার্থীরা হলেন সাবেক বিএনপির সাংসদ স্বতন্ত্র প্রার্থী উকিল আব্দুস সাত্তার ভূইয়া, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী এডঃ আব্দুল হামিদ (ভাসানী), আশুগঞ্জ বিএনপির সাবেক সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু আসিফ আহমেদ , জাকের পার্টির জহিরুল ইসলাম।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কোন রকম বিশৃঙলা ছাড়াই চলছে ভোট গ্রহণ

আপডেট সময় ০৫:৪০:৪৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায় শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। সরাইল সদর ইউনিয়ন, বড্ডাপাড়া, কালিকচ্ছ এলাকার কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে কোথাও কোন বিশৃঙলা চোখে পড়েনি। তবে ভোটার উপস্থিতি একেবারেই কম।

সরাইল আশুগঞ্জ এলাকার মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লক্ষ, ৭৩ হাজার, ১ শত ৪৮ জন। এরমধ্যে সরাইলে মোট ভোটার সংখ্যা রয়েছে ২ লক্ষ ৪০ হাজার ৯ শত ৯ জন ও আশুগঞ্জে রয়েছে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ২ শত ৩৯ জন।

সরাইলে ৮৪টি ও আশুগঞ্জ উপজেলায় ৪৮টিসহ মোট ১৩২ ভোট কেন্দ্রে ১ হাজার ১০০ পুলিশ সদস্য, র‍্যাবের ১০টি টিম, ৪ প্লাটুন বিজিবি এবং ১ হাজার ৫৮৪ জন আনসার সদস্য মোতায়েন রয়েছে । প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ১৭ জনের ফোর্স মোতায়েন আছে। এদের মধ্যে ১২ জন আনসার, দুইজন গ্রাম পুলিশ ও ৩ জন পুলিশ সদস্য রয়েছেন । ভোটে গ্রহণের পরেও তারা ৩ দিন নির্বাচনী এলাকায় দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানা গেছে।

এছাড়াও ৪ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাবের ১০টি টিম আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করছে। সরাইল আশুগঞ্জ ২ উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে একজন করে মোট ১৭ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ২ জন ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন।

উল্লেখ্যঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া -২ (সরাইল -আশুগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকায় ৪ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক দুইবারের সাংসদ এডঃ জিয়াউল হক মৃধা প্রতিদন্দিতা করার কথা থাকলেও তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাড়িয়েছেন। অন্য চার প্রার্থীরা হলেন সাবেক বিএনপির সাংসদ স্বতন্ত্র প্রার্থী উকিল আব্দুস সাত্তার ভূইয়া, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী এডঃ আব্দুল হামিদ (ভাসানী), আশুগঞ্জ বিএনপির সাবেক সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু আসিফ আহমেদ , জাকের পার্টির জহিরুল ইসলাম।