ঢাকা ০৫:০০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চীন বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যিক উন্নয়ন বাড়াতে চায়;চীনা বাণিজ্য মন্ত্রী

  • ছাই ইউয়ে মুক্তা:
  • আপডেট সময় ১০:৫৭:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ৫২ বার পড়া হয়েছে

চীনা বাণিজ্যমন্ত্রী ওয়াং ওয়েন থাও ও বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম (টিটু) ২৭ ফেব্রুয়ারি সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে এক বৈঠক করেছেন। তাঁরা দু’দেশের আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতা নিয়ে মতবিনিময় করেছেন।

জনাব ওয়াং বলেন, গত অগাষ্টে চীনা প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ায় আয়োজিত ব্রিক্সসম্মেলনে বেশ কিছু মতৈক্য হয়েছে। এটি ফলপ্রসূ করতে চীন-বাংলাদেশ বাস্তবসম্মত আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতায় নেতৃত্ব দিচ্ছে। চীন বাংলাদেশের সঙ্গে প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থাগুলো জোরদার করা, দ্বিমুখী বিনিয়োগ সহযোগিতা উন্নত করা এবং দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যিক উন্নয়ন বাড়াতে চায়। তিনি বাংলাদেশের ব্যবসায়ের পরিবেশ আরেক ধাপে উন্নত করে চীনা প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ করা এবং সুবিধা দেওয়ার কথা বলেন।

জনাব আহসানুল ইসলাম বলেন, চীন হলো বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগী অংশীদার। চীন বাংলাদেশের অর্থনীতি ও সমাজের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে। বাংলাদেশ চীনে রপ্তানি বাড়াতে চায়। তিনি চীনা প্রতিষ্ঠানগুলোকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে স্বাগত জানান, যাতে দু’দেশের আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতা নতুন স্তরে উন্নিত হয়।
সূত্র:চায়না মিডিয়া গ্রুপ।

জনপ্রিয় সংবাদ

চীন বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যিক উন্নয়ন বাড়াতে চায়;চীনা বাণিজ্য মন্ত্রী

আপডেট সময় ১০:৫৭:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

চীনা বাণিজ্যমন্ত্রী ওয়াং ওয়েন থাও ও বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম (টিটু) ২৭ ফেব্রুয়ারি সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে এক বৈঠক করেছেন। তাঁরা দু’দেশের আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতা নিয়ে মতবিনিময় করেছেন।

জনাব ওয়াং বলেন, গত অগাষ্টে চীনা প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ায় আয়োজিত ব্রিক্সসম্মেলনে বেশ কিছু মতৈক্য হয়েছে। এটি ফলপ্রসূ করতে চীন-বাংলাদেশ বাস্তবসম্মত আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতায় নেতৃত্ব দিচ্ছে। চীন বাংলাদেশের সঙ্গে প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থাগুলো জোরদার করা, দ্বিমুখী বিনিয়োগ সহযোগিতা উন্নত করা এবং দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যিক উন্নয়ন বাড়াতে চায়। তিনি বাংলাদেশের ব্যবসায়ের পরিবেশ আরেক ধাপে উন্নত করে চীনা প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ করা এবং সুবিধা দেওয়ার কথা বলেন।

জনাব আহসানুল ইসলাম বলেন, চীন হলো বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগী অংশীদার। চীন বাংলাদেশের অর্থনীতি ও সমাজের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে। বাংলাদেশ চীনে রপ্তানি বাড়াতে চায়। তিনি চীনা প্রতিষ্ঠানগুলোকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে স্বাগত জানান, যাতে দু’দেশের আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতা নতুন স্তরে উন্নিত হয়।
সূত্র:চায়না মিডিয়া গ্রুপ।