ঢাকা ০২:৪৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় আ.লীগের সম্মেলনে চেয়ার ছোড়াছুড়ি, সাবেক সভাপতিসহ আহত ৬

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: দীর্ঘ ৭ বছর পর চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন শুরু হয়েছে। সম্মেলন শুরুর আগে মাঠে দুই পক্ষের চেয়ার ছোড়াছুড়ির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিকসহ ছয়জন আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (১২ ডিসেম্বর) সকাল ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা টাউনহল ফুটবল মাঠে আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের মঞ্চের পাশে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত হিরক বলেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিকের নির্দেশনা অনুযায়ী সম্মেলন সফল করার জন্য মাঠেই কাজ করছিলাম। এ সময় মাফিজুর রহমান মাফির নেতৃত্বে তাবু, তাওরাত, প্লাবনরা সংঘবদ্ধভাবে আমাদের প্রতিরোধ করে। তারা মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিকের ওপর চেয়ার নিক্ষেপ করে। প্রতিরোধ করার সময় আমরাও আহত হই।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. এহসানুল হক তন্ময় (সার্জারি) বলেন, মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক ও হিরকের মাথা ও তারেক হাসানের হাতের একটি আঙ্গুল আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। সেলাই দেওয়া হয়েছে। তারা এখন শঙ্কামুক্ত। সবাইকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ভর্তি করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, সম্মেলনের আসন নিয়ে দুটা গ্রুপ হয়েছিল বলে ভিডিও ফুটেজের মাধ্যমে আমরা জেনেছি। কাদের কোথায় কখন মারধর করেছে, হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে কিনা এই তথ্য আমার জানা নেই।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২ ডিসেম্বর টাউনহল ফুটবল মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ সাত বছর পর আজ চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হচ্ছে।

আপলোডকারীর তথ্য

চুয়াডাঙ্গায় আ.লীগের সম্মেলনে চেয়ার ছোড়াছুড়ি, সাবেক সভাপতিসহ আহত ৬

আপডেট সময় ০৭:৫৮:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ ডিসেম্বর ২০২২

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: দীর্ঘ ৭ বছর পর চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন শুরু হয়েছে। সম্মেলন শুরুর আগে মাঠে দুই পক্ষের চেয়ার ছোড়াছুড়ির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিকসহ ছয়জন আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (১২ ডিসেম্বর) সকাল ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা টাউনহল ফুটবল মাঠে আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের মঞ্চের পাশে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত হিরক বলেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিকের নির্দেশনা অনুযায়ী সম্মেলন সফল করার জন্য মাঠেই কাজ করছিলাম। এ সময় মাফিজুর রহমান মাফির নেতৃত্বে তাবু, তাওরাত, প্লাবনরা সংঘবদ্ধভাবে আমাদের প্রতিরোধ করে। তারা মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিকের ওপর চেয়ার নিক্ষেপ করে। প্রতিরোধ করার সময় আমরাও আহত হই।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. এহসানুল হক তন্ময় (সার্জারি) বলেন, মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক ও হিরকের মাথা ও তারেক হাসানের হাতের একটি আঙ্গুল আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। সেলাই দেওয়া হয়েছে। তারা এখন শঙ্কামুক্ত। সবাইকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ভর্তি করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, সম্মেলনের আসন নিয়ে দুটা গ্রুপ হয়েছিল বলে ভিডিও ফুটেজের মাধ্যমে আমরা জেনেছি। কাদের কোথায় কখন মারধর করেছে, হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে কিনা এই তথ্য আমার জানা নেই।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২ ডিসেম্বর টাউনহল ফুটবল মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ সাত বছর পর আজ চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হচ্ছে।