ঢাকা ০৪:১৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর ও মেডিকেল কলেজ বাস্তবায়নের দাবিতে কর্মসূচি

ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি ঠাকুরগাঁও বিমানবন্দর ও মেডিকেল কলেজ স্থাপনের। আর সেই লক্ষ্যেই আজ মঙ্গলবার দিন ব্যাপি জেলা স্কুল বড় মাঠে এ কর্মসূচি পালন করে বাস্তবায়ন কমিটি।

কর্মসূচি চলাকালে সেখানে সকল স্তরের মানুষ গণস্বাক্ষরে অংশগ্রহণ করেন। ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর চালু হলে এলাকার উন্নয়ন কর্মসংস্থান ও যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো সহজ হবে।

সুসম্পর্ক গড়ে উঠবে পাশের দেশ ভারত নেপাল ও ভুটানের সাথে। নিত্যপন্য আদান প্রদানে ও অর্থনীতিতে স্বচ্ছলতা ফিরবে।

তবে পরিত্যক্ত ঠাকুরগাঁও বিমানবন্দরটি চালু হলে পর্যটন খাত ও ঠাকুরগাঁওয়ের অর্থনীতি বৃদ্ধি হবে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

গণ সাক্ষরে অংশনেয়া ব্যক্তিরা বলেন, আমাদের একটাই দাবি ঠাকুরগাঁওয়ে পরিত্যক্ত বিমানবন্দর ও একটি মেডিকেল কলেজ চাই। বিমানবন্দরটি হলে আমাদের যাতায়াত ব্যবস্থা খুব সহজ হবে আমরা তাড়াতাড়ি যাতায়াত করতে পারবে স্থানীয়রা এবং অন্যান্যরা।

বিমানবন্দরের পাশাপাশি মেডিকেল কলেজটিও স্থাপন হলে ঠাকুরগাঁওয়ের চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত হবে কমবে ভোগান্তি ও অর্থনৈতিক ব্যয়ও।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর ও মেডিকেল কলেজ বাস্তবায়নের দাবিতে কর্মসূচি

আপডেট সময় ১০:২৪:২০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি ঠাকুরগাঁও বিমানবন্দর ও মেডিকেল কলেজ স্থাপনের। আর সেই লক্ষ্যেই আজ মঙ্গলবার দিন ব্যাপি জেলা স্কুল বড় মাঠে এ কর্মসূচি পালন করে বাস্তবায়ন কমিটি।

কর্মসূচি চলাকালে সেখানে সকল স্তরের মানুষ গণস্বাক্ষরে অংশগ্রহণ করেন। ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর চালু হলে এলাকার উন্নয়ন কর্মসংস্থান ও যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো সহজ হবে।

সুসম্পর্ক গড়ে উঠবে পাশের দেশ ভারত নেপাল ও ভুটানের সাথে। নিত্যপন্য আদান প্রদানে ও অর্থনীতিতে স্বচ্ছলতা ফিরবে।

তবে পরিত্যক্ত ঠাকুরগাঁও বিমানবন্দরটি চালু হলে পর্যটন খাত ও ঠাকুরগাঁওয়ের অর্থনীতি বৃদ্ধি হবে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

গণ সাক্ষরে অংশনেয়া ব্যক্তিরা বলেন, আমাদের একটাই দাবি ঠাকুরগাঁওয়ে পরিত্যক্ত বিমানবন্দর ও একটি মেডিকেল কলেজ চাই। বিমানবন্দরটি হলে আমাদের যাতায়াত ব্যবস্থা খুব সহজ হবে আমরা তাড়াতাড়ি যাতায়াত করতে পারবে স্থানীয়রা এবং অন্যান্যরা।

বিমানবন্দরের পাশাপাশি মেডিকেল কলেজটিও স্থাপন হলে ঠাকুরগাঁওয়ের চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত হবে কমবে ভোগান্তি ও অর্থনৈতিক ব্যয়ও।