ঢাকা ০৭:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে যুবলীগ নেতাকে মারপিটের ঘটনায় ওসি কামাল প্রত্যাহার

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ যুবলীগ নেতা আসাদুজ্জামান পুলককে মারপিটের ঘটনায় আদালতে মামলা দায়েরের পর ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি কামাল হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ মে) সকালে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ সুপার এটিও নিশ্চিত করেছেন প্রশাসনিক কারণে ওসি কামাল হোসেনকে সদর থানা থেকে প্রত্যাহার করে রংপুর রেঞ্জ অফিসে সংযুক্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ, গত ২৯ এপ্রিল রাতে শহরের পাবলিক ক্লাব মাঠে অনুষ্ঠিত বৈশাখী মেলার দোকান বরাদ্দ নিয়ে মেলা কমিটির সাথে যুবলীগের কয়েকজনের বাকবিতন্ডা হয়। পরে মেলা কমিটি পুলিশের সহায়তা চাইলে সেখানে সদর থানার ওসি কামাল হোসেনসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত হন।

এসময় এক পর্যায়ে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান পুলকের সাথে ওসি কামাল হোসেনের বাকবিতন্ডা ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে বলে পুলকের ভিডিও বার্তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া থেকে জানা যায়।

ভিডিও থেকে আরো জানা যায়, পরে সেখান থেকে পুলককে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। থানার ভেতর তার চোখে কাপড় বেঁধে নির্যাতন করে হাত ভেঙে ফেলে। ঘটনার তিনদিন পর জামিন নিয়ে ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নেয় পুলক।

এ ঘটনায় বুধবার (১০ মে) দুপুরে জেলা দায়রা আদালতে ওসি কামাল হোসেনসহ পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন পুলক।
মামলার ২৪ ঘন্টা পার না হতেই ওসি কামালকে প্রত্যাহার করা হয়।

আপলোডকারীর তথ্য

ঠাকুরগাঁওয়ে যুবলীগ নেতাকে মারপিটের ঘটনায় ওসি কামাল প্রত্যাহার

আপডেট সময় ১২:২৪:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মে ২০২৩

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ যুবলীগ নেতা আসাদুজ্জামান পুলককে মারপিটের ঘটনায় আদালতে মামলা দায়েরের পর ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি কামাল হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ মে) সকালে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ সুপার এটিও নিশ্চিত করেছেন প্রশাসনিক কারণে ওসি কামাল হোসেনকে সদর থানা থেকে প্রত্যাহার করে রংপুর রেঞ্জ অফিসে সংযুক্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ, গত ২৯ এপ্রিল রাতে শহরের পাবলিক ক্লাব মাঠে অনুষ্ঠিত বৈশাখী মেলার দোকান বরাদ্দ নিয়ে মেলা কমিটির সাথে যুবলীগের কয়েকজনের বাকবিতন্ডা হয়। পরে মেলা কমিটি পুলিশের সহায়তা চাইলে সেখানে সদর থানার ওসি কামাল হোসেনসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত হন।

এসময় এক পর্যায়ে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান পুলকের সাথে ওসি কামাল হোসেনের বাকবিতন্ডা ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে বলে পুলকের ভিডিও বার্তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া থেকে জানা যায়।

ভিডিও থেকে আরো জানা যায়, পরে সেখান থেকে পুলককে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। থানার ভেতর তার চোখে কাপড় বেঁধে নির্যাতন করে হাত ভেঙে ফেলে। ঘটনার তিনদিন পর জামিন নিয়ে ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নেয় পুলক।

এ ঘটনায় বুধবার (১০ মে) দুপুরে জেলা দায়রা আদালতে ওসি কামাল হোসেনসহ পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন পুলক।
মামলার ২৪ ঘন্টা পার না হতেই ওসি কামালকে প্রত্যাহার করা হয়।