ঢাকা ১১:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নড়াইলে ভ্যান ও মোবাইল ফোনসহ ছিনতাইকারী আটক

সোহাগ মোল্যা (২০) নামের এক ছিনতাইকারীকে আটক করেছে নড়াইল সদর থানা পুলিশ। সে নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা গ্রামের মৃত হাফিজুর রহমানের ছেলে।

নড়াইল সদর উপজেলার পাইকমারী গ্রামের ভ্যানচালক জনৈক আব্দুল্লাহ মোল্যা প্রতিদিনের ন্যায় ৯ এপ্রিল রাতে যাত্রীর প্রত্যাশায় পুরাতন বাস টার্মিনালে অপেক্ষা করতে থাকেন। অতঃপর পংকবিলা ঘাটে যাওয়ার উদ্দেশ্যে একজন যাত্রী তার ভ্যানে ওঠে। পথিমধ্যে আউড়িয়া গ্রামস্থ মহাশ্মশানের পাশে পৌঁছালে ওই যাত্রী কৌশলে তাকে অচেতন করে ভ্যান ও মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে জ্ঞান ফিরলে ভ্যানচালক স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় পুলিশের কন্ট্রোল রুমে জানালে নড়াইল জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব মোসাঃ সাদিরা খাতুন মহোদয়ের নির্দেশনায় সদর থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব ওবাইদুর রহমান দ্রুত সকল গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেকপোস্ট জোরদার করেন। অবশেষে পুলিশের তৎপরতায় রাত অনুমান ২.৩০ ঘটিকায় বিছালী ক্যাম্প পুলিশের চেকপোস্টে ছিনতাইকৃত ভ্যান ও মোবাইলসহ ছিনতাইকারী ধরা পড়ে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কোমল পানীয় এর সাথে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে কৌশলে তা ভ্যানচালককে পান করিয়ে অচেতন করে ভ্যান ও মোবাইল ফোন ছিনতাই করেছে মর্মে আসামি স্বীকার করেছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নড়াইলে ভ্যান ও মোবাইল ফোনসহ ছিনতাইকারী আটক

আপডেট সময় ০২:১৮:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ এপ্রিল ২০২৩

সোহাগ মোল্যা (২০) নামের এক ছিনতাইকারীকে আটক করেছে নড়াইল সদর থানা পুলিশ। সে নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা গ্রামের মৃত হাফিজুর রহমানের ছেলে।

নড়াইল সদর উপজেলার পাইকমারী গ্রামের ভ্যানচালক জনৈক আব্দুল্লাহ মোল্যা প্রতিদিনের ন্যায় ৯ এপ্রিল রাতে যাত্রীর প্রত্যাশায় পুরাতন বাস টার্মিনালে অপেক্ষা করতে থাকেন। অতঃপর পংকবিলা ঘাটে যাওয়ার উদ্দেশ্যে একজন যাত্রী তার ভ্যানে ওঠে। পথিমধ্যে আউড়িয়া গ্রামস্থ মহাশ্মশানের পাশে পৌঁছালে ওই যাত্রী কৌশলে তাকে অচেতন করে ভ্যান ও মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে জ্ঞান ফিরলে ভ্যানচালক স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় পুলিশের কন্ট্রোল রুমে জানালে নড়াইল জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব মোসাঃ সাদিরা খাতুন মহোদয়ের নির্দেশনায় সদর থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব ওবাইদুর রহমান দ্রুত সকল গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেকপোস্ট জোরদার করেন। অবশেষে পুলিশের তৎপরতায় রাত অনুমান ২.৩০ ঘটিকায় বিছালী ক্যাম্প পুলিশের চেকপোস্টে ছিনতাইকৃত ভ্যান ও মোবাইলসহ ছিনতাইকারী ধরা পড়ে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কোমল পানীয় এর সাথে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে কৌশলে তা ভ্যানচালককে পান করিয়ে অচেতন করে ভ্যান ও মোবাইল ফোন ছিনতাই করেছে মর্মে আসামি স্বীকার করেছে।