ঢাকা ১১:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নড়াইলে ১২০ টাকার টাকায় পুলিশের চাকুরি পেয়েছেন ২৭ জন

চাকরি নয় সেবা’ শ্লোগানে স্মার্ট পুলিশ তৈরি করতে মেধাবী ও যোগ্য প্রার্থী বাছাই করে নড়াইলে ২৭টি পদে পুলিশের চাকুরি হয়েছে। পুলিশের চাকরি পেতে টাকা-পয়সা লাগে না। সন্তানের চাকরির জন্য অভিভাবকদের জমিজমা বিক্রি করতে হবে না। মাত্র ১২০ টাকায় খরচেই কনস্টেবল পদে পুলিশে চাকরি এর মধ্যে ১০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট এবং ২০ টাকার ফরম কিনেই হবে যোগ্য প্রার্থীর চাকুরি হয়।
নড়াইল জেলা পুলিশ লাইন্স ড্রিলশেডে আনুষ্ঠানিক ভাবে বুধবার (২২ মার্চ) সকালে নড়াইল জেলা পুলিশের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন পুলিশ সুপার সাদিরা খাতুন্
তিনি বলেন, মাত্র ১২০ টাকা খরচ করে স্বপ্ন পূরণ হলো নড়াইলের ২৭ তরুণ তরুণী। কোনোরকম ঘুষ-তদবির ছাড়াই মেধা ও যোগ্যতার মূল্যায়নে পুলিশে চাকরি হয়েছে তাদের। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়ন ও স্মার্ট বাংলাদেশের উপযোগী করে স্মার্ট পুলিশিং ব্যবস্থা বিনির্মাণের প্রত্যয়ে বিদ্যমান কনস্টেবল পদে নিয়োগ পদ্ধতির আধুনিকায়ন করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। সম্পূর্ণ মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে যোগ্যতম প্রার্থীকেই নির্বাচিত করা হয়েছে। যে সকল প্রার্তী প্রতিটি পরীক্ষায় নিজ নিজ যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছে শুধুমাত্র তারাই নিয়োগযোগ্য হিসেবে মনোনীত হয়েছে।
এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল ইসলাম এস এম, কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সিআইডি) প্রত্যুষ কুমার মজুমদার, সদর থানার ওসি ওবাইদুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য পুলিশ সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

আপলোডকারীর তথ্য

নড়াইলে ১২০ টাকার টাকায় পুলিশের চাকুরি পেয়েছেন ২৭ জন

আপডেট সময় ০৮:২৮:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩

চাকরি নয় সেবা’ শ্লোগানে স্মার্ট পুলিশ তৈরি করতে মেধাবী ও যোগ্য প্রার্থী বাছাই করে নড়াইলে ২৭টি পদে পুলিশের চাকুরি হয়েছে। পুলিশের চাকরি পেতে টাকা-পয়সা লাগে না। সন্তানের চাকরির জন্য অভিভাবকদের জমিজমা বিক্রি করতে হবে না। মাত্র ১২০ টাকায় খরচেই কনস্টেবল পদে পুলিশে চাকরি এর মধ্যে ১০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট এবং ২০ টাকার ফরম কিনেই হবে যোগ্য প্রার্থীর চাকুরি হয়।
নড়াইল জেলা পুলিশ লাইন্স ড্রিলশেডে আনুষ্ঠানিক ভাবে বুধবার (২২ মার্চ) সকালে নড়াইল জেলা পুলিশের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন পুলিশ সুপার সাদিরা খাতুন্
তিনি বলেন, মাত্র ১২০ টাকা খরচ করে স্বপ্ন পূরণ হলো নড়াইলের ২৭ তরুণ তরুণী। কোনোরকম ঘুষ-তদবির ছাড়াই মেধা ও যোগ্যতার মূল্যায়নে পুলিশে চাকরি হয়েছে তাদের। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়ন ও স্মার্ট বাংলাদেশের উপযোগী করে স্মার্ট পুলিশিং ব্যবস্থা বিনির্মাণের প্রত্যয়ে বিদ্যমান কনস্টেবল পদে নিয়োগ পদ্ধতির আধুনিকায়ন করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। সম্পূর্ণ মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে যোগ্যতম প্রার্থীকেই নির্বাচিত করা হয়েছে। যে সকল প্রার্তী প্রতিটি পরীক্ষায় নিজ নিজ যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছে শুধুমাত্র তারাই নিয়োগযোগ্য হিসেবে মনোনীত হয়েছে।
এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল ইসলাম এস এম, কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সিআইডি) প্রত্যুষ কুমার মজুমদার, সদর থানার ওসি ওবাইদুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য পুলিশ সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।