ঢাকা ০২:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরুড়ায় কিশোর গ্যাং এর হামলায় যুবক আহত থানায় অভিযোগ

কুমিল্লার বরুড়ায় কিশোর গ্যাং এর হামলায় আব্দুল রহিম (২৫) নামের এক যুবক আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বরুড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই যুবকের ভাই আব্দুল কাদের।

জানা গেছে, উপজেলায় আড্ডা ইউনিয়নের আড্ডা বাজারের পুরাতন বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন সেবা হসপিটাল এর সামনে মেইন সড়কের উপর ঘটনাটি ঘটে গত ২০শে মার্চ ২০২৩ ইং সোমবার বিকাল ৫:৩০মিনিটের সময়।

এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আড্ডা ইউনিয়নের খাটলা গ্রামের মিত্রের বাড়ীর মোঃ রাজ্জাক এর ছেলে আব্দুল রহিম (২৫) বাড়ী হইতে ঢাকা যাওয়ার সময় কিশোর গ্যাং এর দলের কবির মেম্বার এর ছেলে মোঃ সাজিদ (১৯), মোঃ আমির এর ছেলে মোঃ এমরান (১৮), মনির এর ছেলে মোঃ জোয়েল (১৯), আজিহুল হক এর ছেলে মোঃ রনি (১৯), মোঃ মিলন (২০)ও সম্রাাট পিতা-অজ্ঞাত সহ ৫ থেকে ৬ জন সর্বসাং-দক্ষিণ আড্ডা বরুড়া, কুমিল্লা আড্ডা বাজারের বলাকা বাসকে বে-আইনি ভাবে গতি রোধ করে বাস থেকে নামিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে অতর্কিত ভাবে মারধর করে এবং সাথে থাকা নগদ ৮০,০০০ (আশিঁ হাজার) টাকা নিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে চলে যায়। জানা যায় ঘটনা স্থল হইতে মোঃ রাজ্জাক এর ছেলে আব্দুল রহিম (২৫)কে গুরুতর অবস্থায় স্থানীয় লোকজন প্রথমে স্থানীয় হসপিতালে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল হসপিতালে জরুরী বিভাগে ভর্তি করায়। বর্তমানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। এই বিষয়ে বরুড়া থানায় এজাহার দায়ের কার হয়েছে যাহার এস.ডি,আর নং ৫৪৮, বাদী আব্দুল কাদের এর সাথে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, ভিকটিম আব্দুর রহিম আমার ছোট ভাই হয়। আমি ঘটনার খবর পেয়ে প্রথমে ঘটনা স্থলে যাওয়ার পরে জানতে পারি আমার ভাই আশংকা জনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেলে জরুরী বিভাগে ভর্তি আছে। আমি সাথে সাথে কুমিল্লা মেডিকেল হসপিটালে যাই এবং ঘটনার বিষয়ে জানতে পারি। স্থানীয় লোকজনের সাথে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিছুক অনেকে জানান, মোঃ সাজিদ গং এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করিয়া আসিতেছে। তাহারা স্কুল-কলেজের মেয়েদেরকে উত্ত্যক্ত করা, মাদক ও চাঁদাবাজির সাথে জড়িত। তবে তাদেরকে কে বা কারা ইন্ধন দিচ্ছে তা আমরা জানি না। এই বিষয়ে বরুড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফিরোজ হোসেন এর নিকট জানতে চাহলে তিনি জানান, বাদীর লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, অপরাধী যেই হোক কোন ছাড় দেওয়া হবে না। তাকে আইনে আওতায় আনা হবে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বরুড়ায় কিশোর গ্যাং এর হামলায় যুবক আহত থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় ০৫:৫০:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০২৩

কুমিল্লার বরুড়ায় কিশোর গ্যাং এর হামলায় আব্দুল রহিম (২৫) নামের এক যুবক আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বরুড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই যুবকের ভাই আব্দুল কাদের।

জানা গেছে, উপজেলায় আড্ডা ইউনিয়নের আড্ডা বাজারের পুরাতন বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন সেবা হসপিটাল এর সামনে মেইন সড়কের উপর ঘটনাটি ঘটে গত ২০শে মার্চ ২০২৩ ইং সোমবার বিকাল ৫:৩০মিনিটের সময়।

এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আড্ডা ইউনিয়নের খাটলা গ্রামের মিত্রের বাড়ীর মোঃ রাজ্জাক এর ছেলে আব্দুল রহিম (২৫) বাড়ী হইতে ঢাকা যাওয়ার সময় কিশোর গ্যাং এর দলের কবির মেম্বার এর ছেলে মোঃ সাজিদ (১৯), মোঃ আমির এর ছেলে মোঃ এমরান (১৮), মনির এর ছেলে মোঃ জোয়েল (১৯), আজিহুল হক এর ছেলে মোঃ রনি (১৯), মোঃ মিলন (২০)ও সম্রাাট পিতা-অজ্ঞাত সহ ৫ থেকে ৬ জন সর্বসাং-দক্ষিণ আড্ডা বরুড়া, কুমিল্লা আড্ডা বাজারের বলাকা বাসকে বে-আইনি ভাবে গতি রোধ করে বাস থেকে নামিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে অতর্কিত ভাবে মারধর করে এবং সাথে থাকা নগদ ৮০,০০০ (আশিঁ হাজার) টাকা নিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে চলে যায়। জানা যায় ঘটনা স্থল হইতে মোঃ রাজ্জাক এর ছেলে আব্দুল রহিম (২৫)কে গুরুতর অবস্থায় স্থানীয় লোকজন প্রথমে স্থানীয় হসপিতালে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল হসপিতালে জরুরী বিভাগে ভর্তি করায়। বর্তমানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। এই বিষয়ে বরুড়া থানায় এজাহার দায়ের কার হয়েছে যাহার এস.ডি,আর নং ৫৪৮, বাদী আব্দুল কাদের এর সাথে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, ভিকটিম আব্দুর রহিম আমার ছোট ভাই হয়। আমি ঘটনার খবর পেয়ে প্রথমে ঘটনা স্থলে যাওয়ার পরে জানতে পারি আমার ভাই আশংকা জনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেলে জরুরী বিভাগে ভর্তি আছে। আমি সাথে সাথে কুমিল্লা মেডিকেল হসপিটালে যাই এবং ঘটনার বিষয়ে জানতে পারি। স্থানীয় লোকজনের সাথে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিছুক অনেকে জানান, মোঃ সাজিদ গং এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করিয়া আসিতেছে। তাহারা স্কুল-কলেজের মেয়েদেরকে উত্ত্যক্ত করা, মাদক ও চাঁদাবাজির সাথে জড়িত। তবে তাদেরকে কে বা কারা ইন্ধন দিচ্ছে তা আমরা জানি না। এই বিষয়ে বরুড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফিরোজ হোসেন এর নিকট জানতে চাহলে তিনি জানান, বাদীর লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, অপরাধী যেই হোক কোন ছাড় দেওয়া হবে না। তাকে আইনে আওতায় আনা হবে।