ঢাকা ০২:০২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাগেরহাটে বাঘের আক্রমণে আহত জেলে অনুকুল গাইনের মৃত্যু

বাঘের আক্রমণের শিকার হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টানা ২১দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মারা গেছেন জেলে অনুকুল গাইন। শুক্রবার রাত ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে মৃত্যু হয় তার। শনিবার সকালে তার মরদেহ আমুরবুনিয়ার বাড়ীতে এসে পৌঁছায়। তারপর বেলা সোয়া ১১টার দিকে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে।

সুন্দরবন পূর্ব বনবিভাগের জিউধারা ষ্টেশন (মোংলা) কর্মকর্তা মোঃ শাহজাহান জানান, গত ২৭ জানুয়ারী সুন্দরবনে সুদীরেরচিলা খালে মাছ ধরতে গিয়ে বাঘের আক্রমণের শিকার হন বন সংলগ্ন আমুরবুনিয়া গ্রামের জেলে অনুকুল গাইন (৩০)। এরপর তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মোড়েলগন্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তারপর খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। খুলনা থেকে ঘটনারদিনই পাঠানো হয়েছিলো ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে টানা ২১দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাতে তার মৃত্যু হয়। অনুকুল গাইন আমুরবুনিয়া গ্রামের মৃত মুকুন্দ গাইনের ছেলে। ১৫ বছর আগে মুকুন্দ গাইন ছেলে অনুকুল ও তার স্ত্রীকে রেখে মারা যান। পিতার মৃত্যুর পর অনুকুল বিছানাশায়ী বৃদ্ধা মাকে নিয়ে জীবনযাপন করে আসছিলেন। মা-ছেলের সংসারে সুন্দরবনে মাছ ধরে জীবিকা চলতো অনুকুল পরিবারের। বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন ছেলেকে হারিয়ে পাগলপ্রায় মা এখন দিকবিদিকশুন্য হয়ে পড়েছেন।
বন কর্মকর্তা শাহজাহান বলেন, মাছ ধরতে গেলে বাঘের আক্রমণে অনুকুলের পিঠের বাম পাঁজরের হাড় ভেঙ্গে পেটের নাড়ী বের হয়ে যায়। পরে গামছা দিয়ে বেঁধে নেয়া হয়েছিলো হাসপাতালে। চিকিৎসার অনেক চেষ্টার পরও তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। শুক্রবার রাতে মারা যান অনুকুল।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বাগেরহাটে বাঘের আক্রমণে আহত জেলে অনুকুল গাইনের মৃত্যু

আপডেট সময় ০৭:৩৪:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বাঘের আক্রমণের শিকার হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টানা ২১দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মারা গেছেন জেলে অনুকুল গাইন। শুক্রবার রাত ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে মৃত্যু হয় তার। শনিবার সকালে তার মরদেহ আমুরবুনিয়ার বাড়ীতে এসে পৌঁছায়। তারপর বেলা সোয়া ১১টার দিকে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে।

সুন্দরবন পূর্ব বনবিভাগের জিউধারা ষ্টেশন (মোংলা) কর্মকর্তা মোঃ শাহজাহান জানান, গত ২৭ জানুয়ারী সুন্দরবনে সুদীরেরচিলা খালে মাছ ধরতে গিয়ে বাঘের আক্রমণের শিকার হন বন সংলগ্ন আমুরবুনিয়া গ্রামের জেলে অনুকুল গাইন (৩০)। এরপর তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মোড়েলগন্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তারপর খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। খুলনা থেকে ঘটনারদিনই পাঠানো হয়েছিলো ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে টানা ২১দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাতে তার মৃত্যু হয়। অনুকুল গাইন আমুরবুনিয়া গ্রামের মৃত মুকুন্দ গাইনের ছেলে। ১৫ বছর আগে মুকুন্দ গাইন ছেলে অনুকুল ও তার স্ত্রীকে রেখে মারা যান। পিতার মৃত্যুর পর অনুকুল বিছানাশায়ী বৃদ্ধা মাকে নিয়ে জীবনযাপন করে আসছিলেন। মা-ছেলের সংসারে সুন্দরবনে মাছ ধরে জীবিকা চলতো অনুকুল পরিবারের। বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন ছেলেকে হারিয়ে পাগলপ্রায় মা এখন দিকবিদিকশুন্য হয়ে পড়েছেন।
বন কর্মকর্তা শাহজাহান বলেন, মাছ ধরতে গেলে বাঘের আক্রমণে অনুকুলের পিঠের বাম পাঁজরের হাড় ভেঙ্গে পেটের নাড়ী বের হয়ে যায়। পরে গামছা দিয়ে বেঁধে নেয়া হয়েছিলো হাসপাতালে। চিকিৎসার অনেক চেষ্টার পরও তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। শুক্রবার রাতে মারা যান অনুকুল।