ঢাকা ১১:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাঘাইছড়িতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে ইসলামি ফাউন্ডেশনের স্মারকলিপি প্রদান

শিক্ষক কর্মচারীদের বেতন ভাতা বৃদ্ধি ও চাকুরী স্থায়ীকরনের দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছে রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার ইসলামি ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীগন।

৭ মে রবিবার সকাল ১১ ঘটিকায় বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমানা আক্তারের কাছে এই স্মারকলিপি পেশ করেন বাঘাইছড়ি ইসলামি ফাউন্ডেশনের মডেল কেয়ার টেকার মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন।
এসময় বাঘাইছড়িতে কর্মরত ইসলামি ফাউন্ডেশনের নারী ও পুরুষ শতাধিক কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন। স্মারক লিপিতে উল্লেখ করেন ১৯৭৫ সালের ২২ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ইসলাম প্রচার ও প্রসারের লক্ষে ইসলামি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধু শাহাদাৎ বরন করায় ইসলামি ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম স্থবির হয়ে যায়। পরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে এই প্রতিষ্ঠান এগিয়ে যায়। প্রতিবছর এই প্রতিষ্ঠানের আওতায় ৭৩৭৬৮ টি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ২৪১৪২০০ জন শিক্ষার্থী সহজ কোরান শিক্ষা গ্রহন করে আসছে।
এছাড়াও শিক্ষকদের বেতন ভাতা ৫ হাজার টাকা থেকে বাড়ানো ও চাকুরী স্থায়ী করনের দাবী জানান তারা।

আপলোডকারীর তথ্য

বাঘাইছড়িতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে ইসলামি ফাউন্ডেশনের স্মারকলিপি প্রদান

আপডেট সময় ০৭:৫২:১৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ মে ২০২৩

শিক্ষক কর্মচারীদের বেতন ভাতা বৃদ্ধি ও চাকুরী স্থায়ীকরনের দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছে রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার ইসলামি ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীগন।

৭ মে রবিবার সকাল ১১ ঘটিকায় বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমানা আক্তারের কাছে এই স্মারকলিপি পেশ করেন বাঘাইছড়ি ইসলামি ফাউন্ডেশনের মডেল কেয়ার টেকার মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন।
এসময় বাঘাইছড়িতে কর্মরত ইসলামি ফাউন্ডেশনের নারী ও পুরুষ শতাধিক কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন। স্মারক লিপিতে উল্লেখ করেন ১৯৭৫ সালের ২২ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ইসলাম প্রচার ও প্রসারের লক্ষে ইসলামি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধু শাহাদাৎ বরন করায় ইসলামি ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম স্থবির হয়ে যায়। পরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে এই প্রতিষ্ঠান এগিয়ে যায়। প্রতিবছর এই প্রতিষ্ঠানের আওতায় ৭৩৭৬৮ টি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ২৪১৪২০০ জন শিক্ষার্থী সহজ কোরান শিক্ষা গ্রহন করে আসছে।
এছাড়াও শিক্ষকদের বেতন ভাতা ৫ হাজার টাকা থেকে বাড়ানো ও চাকুরী স্থায়ী করনের দাবী জানান তারা।