ঢাকা ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাড়ির পাশে রাস্তার ঢালাই ঢালু হওয়ার অভিযোগে স্ত্রিকে কুপিয়ে জখম

লাকসাম(কুমিল্লা) প্রতিনিধি

লাকসাম উপজেলায় এক রাজমিস্ত্রির কন্ট্রাক্টরকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেওয়া অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আমজাদ হোসাইন ও তার স্ত্রী তানিয়া আক্তারের বিরুদ্ধে।
ওই রাজমিস্ত্রির নাম মো. দুলাল মিয়া (৩৮), সে উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়ন তপইয়া গ্রামের
মোঃ মনোহর আলীর ছেলে।
রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়নের রাজাপুর
গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুলাল মিয়া বাদী হয়ে একই ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের মামুন মাষ্টারের বাড়ীর মৃত. আবুল হোসেনের ছেলে আমজাদ হোসাইন ও তার স্ত্রী তানিয়া আক্তারের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার রাতে লাকসাম থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।
লিখিত অভিযোগে ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়ন রাজাপুর গ্রামের আমজাদ হোসেন বাড়ীর রাস্তার ঢালাইয়ের কাজ করতেন একই ইউনিয়ন তপইয়া গ্রামের রাজমিস্ত্রীর কন্ট্রাক্টর দুলাল মিয়া। ঢালাইয়ের কাজের শেষে দুই দিন পরে আমজাদ হোসেনের জায়গার দিকে ঢালু হয়েছে বলে কাজের মিন্ত্রী এবং হেলপারদেরকে এলোপাতাড়ী ভাবে মারধর করে আহত করে আমজাদ হোসেন ও তার স্ত্রী তানিয়া বেগম। কাজের মিন্ত্রী ও হেলপার আহত খবর পেয়ে রাজমিস্ত্রীর কন্ট্রাকক্টর দুলাল মিয়া ঘটনাস্থলে আসার মাত্রই
আমজাদ হোসেন ও তার স্ত্রী তানিয়া আক্তার
ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথায় কুপিয়ে আহত করে নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয় তাঁরা। এরপর দুলাল মিয়া গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়রা আশঙ্কজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে লাকসাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করেন।

লাকসাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহাবুদ্দিন খান বলেন, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বাড়ির পাশে রাস্তার ঢালাই ঢালু হওয়ার অভিযোগে স্ত্রিকে কুপিয়ে জখম

আপডেট সময় ০৬:৪৮:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

লাকসাম(কুমিল্লা) প্রতিনিধি

লাকসাম উপজেলায় এক রাজমিস্ত্রির কন্ট্রাক্টরকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেওয়া অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আমজাদ হোসাইন ও তার স্ত্রী তানিয়া আক্তারের বিরুদ্ধে।
ওই রাজমিস্ত্রির নাম মো. দুলাল মিয়া (৩৮), সে উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়ন তপইয়া গ্রামের
মোঃ মনোহর আলীর ছেলে।
রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়নের রাজাপুর
গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুলাল মিয়া বাদী হয়ে একই ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের মামুন মাষ্টারের বাড়ীর মৃত. আবুল হোসেনের ছেলে আমজাদ হোসাইন ও তার স্ত্রী তানিয়া আক্তারের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার রাতে লাকসাম থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।
লিখিত অভিযোগে ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়ন রাজাপুর গ্রামের আমজাদ হোসেন বাড়ীর রাস্তার ঢালাইয়ের কাজ করতেন একই ইউনিয়ন তপইয়া গ্রামের রাজমিস্ত্রীর কন্ট্রাক্টর দুলাল মিয়া। ঢালাইয়ের কাজের শেষে দুই দিন পরে আমজাদ হোসেনের জায়গার দিকে ঢালু হয়েছে বলে কাজের মিন্ত্রী এবং হেলপারদেরকে এলোপাতাড়ী ভাবে মারধর করে আহত করে আমজাদ হোসেন ও তার স্ত্রী তানিয়া বেগম। কাজের মিন্ত্রী ও হেলপার আহত খবর পেয়ে রাজমিস্ত্রীর কন্ট্রাকক্টর দুলাল মিয়া ঘটনাস্থলে আসার মাত্রই
আমজাদ হোসেন ও তার স্ত্রী তানিয়া আক্তার
ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথায় কুপিয়ে আহত করে নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয় তাঁরা। এরপর দুলাল মিয়া গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়রা আশঙ্কজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে লাকসাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করেন।

লাকসাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহাবুদ্দিন খান বলেন, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।