ঢাকা ০৩:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বায়ু দূষণের তালিকায় শীর্ষে ঢাকা, দ্বিতীয় দিল্লি

মো: নাজমুল হোসেন ইমন, মহানগর প্রতিনিধি, ঢাকা: এসেছে রাজধানী ঢাকা ১৮৬ স্কয়ার নিয়ে বায়ু দূষণের শীর্ষ পর্যায়ে উঠে এসেছে রাজধানী ঢাকা। এখনো এখানকার অস্বস্তিকর পর্যায়ে রয়েছে বাতাস।শনিবার সকাল সোয়া নয়টায় আবহাওয়া মান নির্ণয় পর্যবেক্ষণ সংস্থা (আইকিউইয়ার) সংস্থা থেকে জানা গেছে এই তথ্য।
একই সময় বায়ু দূষণের ২য় অবস্থানে রয়েছে ভারতের দিল্লি। শহরটির স্কোর হচ্ছে ১৭৮ অর্থাৎ সেখানকার বায়ুর মান ও অস্বাস্থ্যকর পর্যায়ে রয়েছে।

দূষণের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছেন নেপালের কাঠমুন্ডু। সেখানকার বায়ুর মানের স্কোর হচ্ছে ১৭২ অর্থাৎ অস্বাস্থ্যকর। এরপর দূষণের তালিকা রয়েছে চীনের সাংহাই। শহরটির দূষন স্কয়ার হচ্ছে ১৬৪ অর্থাৎ অস্বাস্থ্যকর ।

চলতি বছরে জানুয়ারিতে ঢাকার বায়ুর মান দুর্যোগপূর্ণ ছিল, যা গত সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছায়।

সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইকিউ এয়ার দূষিত বাতাসের শহরের এ তালিকা প্রকাশ করে। প্রতিদিনের বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা একিউআই স্কোর একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটুকু নির্মল বা দূষিত, সে সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং তাদের কোন ধরনের স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হতে পারে কিনা তা জানায়।

তথ্য মতে এইকিউআই স্কোর ০ থেকে ৫০ ভালো হিসেবে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ মাঝারী হিসেবে গণ্য করা হয়। আর সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। ১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়।

ঢাকায় বায়ু দূষণের জন্য ইটভাটা, যানবাহনের দোয়া নির্মাণ সাইটের ধূলোকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। বায়ু দূষণের ফলে বাড়ছে শ্বাসকষ্ট, কাশি, নিম্ন শ্বাসনালীর সংক্রমণ, এবং বিষন্নতার ঝুঁকি।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বায়ু দূষণের তালিকায় শীর্ষে ঢাকা, দ্বিতীয় দিল্লি

আপডেট সময় ০৬:০০:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

মো: নাজমুল হোসেন ইমন, মহানগর প্রতিনিধি, ঢাকা: এসেছে রাজধানী ঢাকা ১৮৬ স্কয়ার নিয়ে বায়ু দূষণের শীর্ষ পর্যায়ে উঠে এসেছে রাজধানী ঢাকা। এখনো এখানকার অস্বস্তিকর পর্যায়ে রয়েছে বাতাস।শনিবার সকাল সোয়া নয়টায় আবহাওয়া মান নির্ণয় পর্যবেক্ষণ সংস্থা (আইকিউইয়ার) সংস্থা থেকে জানা গেছে এই তথ্য।
একই সময় বায়ু দূষণের ২য় অবস্থানে রয়েছে ভারতের দিল্লি। শহরটির স্কোর হচ্ছে ১৭৮ অর্থাৎ সেখানকার বায়ুর মান ও অস্বাস্থ্যকর পর্যায়ে রয়েছে।

দূষণের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছেন নেপালের কাঠমুন্ডু। সেখানকার বায়ুর মানের স্কোর হচ্ছে ১৭২ অর্থাৎ অস্বাস্থ্যকর। এরপর দূষণের তালিকা রয়েছে চীনের সাংহাই। শহরটির দূষন স্কয়ার হচ্ছে ১৬৪ অর্থাৎ অস্বাস্থ্যকর ।

চলতি বছরে জানুয়ারিতে ঢাকার বায়ুর মান দুর্যোগপূর্ণ ছিল, যা গত সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছায়।

সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইকিউ এয়ার দূষিত বাতাসের শহরের এ তালিকা প্রকাশ করে। প্রতিদিনের বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা একিউআই স্কোর একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটুকু নির্মল বা দূষিত, সে সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং তাদের কোন ধরনের স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হতে পারে কিনা তা জানায়।

তথ্য মতে এইকিউআই স্কোর ০ থেকে ৫০ ভালো হিসেবে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ মাঝারী হিসেবে গণ্য করা হয়। আর সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। ১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়।

ঢাকায় বায়ু দূষণের জন্য ইটভাটা, যানবাহনের দোয়া নির্মাণ সাইটের ধূলোকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। বায়ু দূষণের ফলে বাড়ছে শ্বাসকষ্ট, কাশি, নিম্ন শ্বাসনালীর সংক্রমণ, এবং বিষন্নতার ঝুঁকি।