ঢাকা ০১:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিএনপির ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের পদযাত্রা

মো: নাজমুল হোসেন ইমন, মহানগর প্রতিনিধি, ঢাকা: বিএনপির ঘোষিত ১০ দফা দাবিতে পদযাত্রা করেছে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি। কেন্দ্রীর ঘোষিত কর্মসূচির বাইরেও ঢাকা মহানগরে পৃথক এ কর্মসূচি পালন করেছে দলটি। বুধবার এ পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। মহানগর উত্তর বিএনপির পদযাত্রা বেলা সাড়ে ৩টার দিকে উত্তর বাড্ডা শাহজাদপুর সুবাস্ত টাওয়ারের সামনে থেকে শুরু করে রামপুরা হয়ে মালিবাগ আবুল হোটেল মোড়ে এসে শেষ হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহবায়ক আমান উল্লাহ আমান আর সঞ্চালনায় ছিলেন সদস্য সচিব আমিনুল হক। মহানগর দক্ষিণ বিএনপি পদযাত্রা রাজধানীর বাসাবো বালুর মাঠের সামনে থেকে শুরু হয়ে মালিবাগ কমিউনিটি সেন্টারের সামনে গিয়ে শেষ হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুর সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন যুগ্নমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
ড. মোশাররফ হোসেন বলেন, একটাই দফা এই সরকারকে হটাতে হবে। কোন স্বৈরাচার এমনি এমনি যায় না। তাকে হটাতে হয়। তাই এ সরকরকে হটাতে গণঅভ্যুত্থানের কোন বিকল্প নাই। এজন্য আপনারা প্রস্তুতি নেন।

বিদেশিদের প্রটোকল প্রত্যাহার বিষয়ে মোশাররফ হোসেন বলেন, গত একান্ন বছরে দেশে এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি। সরকার বিদেশিদের কাছে ধর্না দিয়ে কোন লাভ পায়নি। তাই সরকার পাগল হয়ে গেছে। আপনারা সজাগ থাকুন। কোন ষড়যন্ত্র বা ফাঁদে পা দিবে না। সরকারকে হটিয়ে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে বাধ্য করা হবে।

বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, জনগণকে নিয়ে আমরা পদযাত্রা শুরু করব। এই যে পদযাত্রা শুরু হলো, এই পদযাত্রার মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটিয়ে আমাদের পদযাত্রা থামবে। এই সরকারের বিরুদ্ধে সকল জনগণ যদি ঐক্যবদ্ধভাবে নেমে যাই তাহলে তারা টিকে থাকতে পারবে না।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বিএনপির ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের পদযাত্রা

আপডেট সময় ০৩:১১:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ মে ২০২৩

মো: নাজমুল হোসেন ইমন, মহানগর প্রতিনিধি, ঢাকা: বিএনপির ঘোষিত ১০ দফা দাবিতে পদযাত্রা করেছে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি। কেন্দ্রীর ঘোষিত কর্মসূচির বাইরেও ঢাকা মহানগরে পৃথক এ কর্মসূচি পালন করেছে দলটি। বুধবার এ পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। মহানগর উত্তর বিএনপির পদযাত্রা বেলা সাড়ে ৩টার দিকে উত্তর বাড্ডা শাহজাদপুর সুবাস্ত টাওয়ারের সামনে থেকে শুরু করে রামপুরা হয়ে মালিবাগ আবুল হোটেল মোড়ে এসে শেষ হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহবায়ক আমান উল্লাহ আমান আর সঞ্চালনায় ছিলেন সদস্য সচিব আমিনুল হক। মহানগর দক্ষিণ বিএনপি পদযাত্রা রাজধানীর বাসাবো বালুর মাঠের সামনে থেকে শুরু হয়ে মালিবাগ কমিউনিটি সেন্টারের সামনে গিয়ে শেষ হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুর সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন যুগ্নমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
ড. মোশাররফ হোসেন বলেন, একটাই দফা এই সরকারকে হটাতে হবে। কোন স্বৈরাচার এমনি এমনি যায় না। তাকে হটাতে হয়। তাই এ সরকরকে হটাতে গণঅভ্যুত্থানের কোন বিকল্প নাই। এজন্য আপনারা প্রস্তুতি নেন।

বিদেশিদের প্রটোকল প্রত্যাহার বিষয়ে মোশাররফ হোসেন বলেন, গত একান্ন বছরে দেশে এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি। সরকার বিদেশিদের কাছে ধর্না দিয়ে কোন লাভ পায়নি। তাই সরকার পাগল হয়ে গেছে। আপনারা সজাগ থাকুন। কোন ষড়যন্ত্র বা ফাঁদে পা দিবে না। সরকারকে হটিয়ে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে বাধ্য করা হবে।

বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, জনগণকে নিয়ে আমরা পদযাত্রা শুরু করব। এই যে পদযাত্রা শুরু হলো, এই পদযাত্রার মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটিয়ে আমাদের পদযাত্রা থামবে। এই সরকারের বিরুদ্ধে সকল জনগণ যদি ঐক্যবদ্ধভাবে নেমে যাই তাহলে তারা টিকে থাকতে পারবে না।