ঢাকা ১১:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভূঞাপুরে দুধর্ষ ডাকাতি

টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর পৌর এলাকা বাহাদীপুর গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষিকার বাড়িতে গ্রীল কেটে ঘরে ঢুকে পরিবারের সবাইকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে দুধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার (২৮ মে) গভীর রাতে বাহাদিপুর উত্তরপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষিকা নাজমা খাতুনের বাড়ীতে এমন দুধর্ষ ডাকাতির ঘটনার ঘটে। তার স্বামী ম. সামছুল হক তালুকদার হীরা সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য। স্থানীয় সূত্রে জানার যায় রবিবার গভীর রাতে টাঙ্গাইলে ভূঞাপুর পৌরসভার বাহাদিপুর উত্তর পাড়া রেল ক্রসিং সংলগ্ন স্কুল শিক্ষক নাজমা খাতুনের বাড়ীতে ৪-৫ জনের মুখোসধারী সশস্ত্র ডাকাত দল গ্রীল কেটে ঘরে ডুকে অস্ত্রের মুখে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে রামদা, চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ৬/৭ভড়ি স্বর্ণালংকার, ব্যক্তিগত ও মসজিদের জমানো টাকাসহ ৬/৭ লক্ষাধিক টাকা নিয়ে গেছে বলে জানা যায়। ডাকাতরা ঘরের কয়েকটি আলমারী ওয়ারড্রপ ও ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ার ভেঙ্গে মালামাল লুট ও আসবাপত্র তছনছ করে। এ সময় পরিবারের লোকজন বাধা দিলে ডাকাতদল স্কুল শিক্ষক নাজমা খাতুন ও তার স্বামী অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য ম.সামছুল হক তালুকদার হীরাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে স্বর্ণালংকার ও টাকা পয়সা নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে এদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে ভূঞাপুর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে পরে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে স্থানান্তরীত করা হয়। হীরার শ্যালক রুমিয়া জানান গত রাত ২/৩ টার দিকে ঘরের পশ্চিম পাশে গ্রীল কেটে ঘরে ঢোকে, বোন জামাইকে হত্যার উদ্দ্যেশে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে এবং টাকা পয়সা, স্বর্ণাংলকার নিয়ে যায়।

এ বিষযে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদুল ইসলাম জানান ডাকাতির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। জড়িদের দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতারের চেষ্ঠা চলছে।

আপলোডকারীর তথ্য

ভূঞাপুরে দুধর্ষ ডাকাতি

আপডেট সময় ০৭:৫৫:১৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৯ মে ২০২৩

টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর পৌর এলাকা বাহাদীপুর গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষিকার বাড়িতে গ্রীল কেটে ঘরে ঢুকে পরিবারের সবাইকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে দুধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার (২৮ মে) গভীর রাতে বাহাদিপুর উত্তরপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষিকা নাজমা খাতুনের বাড়ীতে এমন দুধর্ষ ডাকাতির ঘটনার ঘটে। তার স্বামী ম. সামছুল হক তালুকদার হীরা সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য। স্থানীয় সূত্রে জানার যায় রবিবার গভীর রাতে টাঙ্গাইলে ভূঞাপুর পৌরসভার বাহাদিপুর উত্তর পাড়া রেল ক্রসিং সংলগ্ন স্কুল শিক্ষক নাজমা খাতুনের বাড়ীতে ৪-৫ জনের মুখোসধারী সশস্ত্র ডাকাত দল গ্রীল কেটে ঘরে ডুকে অস্ত্রের মুখে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে রামদা, চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ৬/৭ভড়ি স্বর্ণালংকার, ব্যক্তিগত ও মসজিদের জমানো টাকাসহ ৬/৭ লক্ষাধিক টাকা নিয়ে গেছে বলে জানা যায়। ডাকাতরা ঘরের কয়েকটি আলমারী ওয়ারড্রপ ও ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ার ভেঙ্গে মালামাল লুট ও আসবাপত্র তছনছ করে। এ সময় পরিবারের লোকজন বাধা দিলে ডাকাতদল স্কুল শিক্ষক নাজমা খাতুন ও তার স্বামী অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য ম.সামছুল হক তালুকদার হীরাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে স্বর্ণালংকার ও টাকা পয়সা নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে এদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে ভূঞাপুর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে পরে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে স্থানান্তরীত করা হয়। হীরার শ্যালক রুমিয়া জানান গত রাত ২/৩ টার দিকে ঘরের পশ্চিম পাশে গ্রীল কেটে ঘরে ঢোকে, বোন জামাইকে হত্যার উদ্দ্যেশে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে এবং টাকা পয়সা, স্বর্ণাংলকার নিয়ে যায়।

এ বিষযে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদুল ইসলাম জানান ডাকাতির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। জড়িদের দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতারের চেষ্ঠা চলছে।