ঢাকা ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মোংলায় পরিবেশ সচেতনতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রচারাভিযান উপলক্ষে শোভাযাত্রা

অতনু চৌধুরী (রাজু), বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ পরিবেশ সচেতনতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক শিক্ষার্থীদের প্রচারাভিযান উপলক্ষে মোংলায় দিনব্যা‌পী নানান কর্মসূচি পালিত হয়েছে।কর্মসূচীর মধ্যে ছিল বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, বর্জ্য ব্যাবস্থাপনার উপকরণ বিতরণ, অনলাইন কুইজ, ক্ষুদে মেয়র ভাবনা, প্রচারপত্র বিলি, পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, পোস্টার, চিত্রাঙ্কন, বিতর্ক ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী, মোংলা ঘোষণা পাঠ, আলোচনা সভা প্রভৃতি।
মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় মোংলা পৌর মার্কেট থেকে পরিবেশ সচেতনতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রায় বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ, উন্নয়নকর্মীগণসহ কয়েকশ, মানুষ অংশগ্রহণ করেন। কবুতর উড়িয়ে এই শোভাযাত্রার সূচনা করা হয়। শোভাযাত্রাটি মোংলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে মোংলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় গিয়ে শেষ হয়। সুইজারল্যান্ড সরকারের সহায়তায় “করোনা অতিমারীতে ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য জরুরী পুনর্বাসন উদ্যোগ” প্রকল্পের পক্ষ থেকে এই প্রচারাভিযানের আয়োজন করা হয়। রূপান্তর এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

মোংলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় চত্বরে মূল অনুষ্ঠান মঞ্চ স্থাপন করা হয়। এর পাশেই ছিল পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, সুবিধাভোগীদের স্টল পরিচালনা, বর্জ্যরে বিনিময়ে উপহার প্রদান কার্যক্রম কেন্দ্র। রুপান্তর সংস্থার কর্মসূচি সমন্বয়কারী অসীম আনন্দ দাসের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা এবং প্রচারাভিযানের উদ্দেশ্য বর্ণনা করেন রূপান্তর-এর নির্বাহী পরিচালক স্বপন কৃমার গুহ ও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন রূপান্তর-এর কর্মসূচি পরিচালক ফারুক আহমেদ। মোংলা পোর্ট পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমান’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপংকর দাশ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশবিদ, সুন্দরবন একাডেমীর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ১০ দফার মোংলা ঘোষণা পাঠ করা হয়। ১০ দফার মধ্যে

ছিল-সুষ্টু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে উদ্ভাবনী এবং কার্যকর সমাধান খুঁজে বের করতে হবে। বিশেষ করে প্লাস্টিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় মোংলা উপজেলাকে রোল মডেল করতে উদ্যোগ নিতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত অভিঘাত মোকাবেলায় জনসচেতনতা সৃষ্টিতে মোংলা প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিগণ সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করবেন। বর্জ্য ব্যবস্থাপনার আধুনিক পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে মোংলা পৌরসভাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা বন্ধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। রাস্তার ও নদীর দুপাশ দিয়ে সবুজ বনায়ন তৈরী করতে হবে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মোংলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপংকর দাশ এই আয়োজনের জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, পরিবেশ সুরক্ষার সাথে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিষয়টি ওৎপ্রোতভাবে জড়িত। জনগণের অংশগ্রহণ ছাড়া সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্ভব নয়। এ কাজে স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহ সম্ভব সব কিছু করবে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

মোংলায় পরিবেশ সচেতনতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রচারাভিযান উপলক্ষে শোভাযাত্রা

আপডেট সময় ০৬:০৬:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারী ২০২৩

অতনু চৌধুরী (রাজু), বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ পরিবেশ সচেতনতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক শিক্ষার্থীদের প্রচারাভিযান উপলক্ষে মোংলায় দিনব্যা‌পী নানান কর্মসূচি পালিত হয়েছে।কর্মসূচীর মধ্যে ছিল বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, বর্জ্য ব্যাবস্থাপনার উপকরণ বিতরণ, অনলাইন কুইজ, ক্ষুদে মেয়র ভাবনা, প্রচারপত্র বিলি, পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, পোস্টার, চিত্রাঙ্কন, বিতর্ক ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী, মোংলা ঘোষণা পাঠ, আলোচনা সভা প্রভৃতি।
মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় মোংলা পৌর মার্কেট থেকে পরিবেশ সচেতনতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রায় বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ, উন্নয়নকর্মীগণসহ কয়েকশ, মানুষ অংশগ্রহণ করেন। কবুতর উড়িয়ে এই শোভাযাত্রার সূচনা করা হয়। শোভাযাত্রাটি মোংলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে মোংলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় গিয়ে শেষ হয়। সুইজারল্যান্ড সরকারের সহায়তায় “করোনা অতিমারীতে ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য জরুরী পুনর্বাসন উদ্যোগ” প্রকল্পের পক্ষ থেকে এই প্রচারাভিযানের আয়োজন করা হয়। রূপান্তর এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

মোংলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় চত্বরে মূল অনুষ্ঠান মঞ্চ স্থাপন করা হয়। এর পাশেই ছিল পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, সুবিধাভোগীদের স্টল পরিচালনা, বর্জ্যরে বিনিময়ে উপহার প্রদান কার্যক্রম কেন্দ্র। রুপান্তর সংস্থার কর্মসূচি সমন্বয়কারী অসীম আনন্দ দাসের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা এবং প্রচারাভিযানের উদ্দেশ্য বর্ণনা করেন রূপান্তর-এর নির্বাহী পরিচালক স্বপন কৃমার গুহ ও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন রূপান্তর-এর কর্মসূচি পরিচালক ফারুক আহমেদ। মোংলা পোর্ট পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমান’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপংকর দাশ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশবিদ, সুন্দরবন একাডেমীর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ১০ দফার মোংলা ঘোষণা পাঠ করা হয়। ১০ দফার মধ্যে

ছিল-সুষ্টু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে উদ্ভাবনী এবং কার্যকর সমাধান খুঁজে বের করতে হবে। বিশেষ করে প্লাস্টিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় মোংলা উপজেলাকে রোল মডেল করতে উদ্যোগ নিতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত অভিঘাত মোকাবেলায় জনসচেতনতা সৃষ্টিতে মোংলা প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিগণ সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করবেন। বর্জ্য ব্যবস্থাপনার আধুনিক পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে মোংলা পৌরসভাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা বন্ধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। রাস্তার ও নদীর দুপাশ দিয়ে সবুজ বনায়ন তৈরী করতে হবে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মোংলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপংকর দাশ এই আয়োজনের জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, পরিবেশ সুরক্ষার সাথে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিষয়টি ওৎপ্রোতভাবে জড়িত। জনগণের অংশগ্রহণ ছাড়া সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্ভব নয়। এ কাজে স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহ সম্ভব সব কিছু করবে।