ঢাকা ০৫:০২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোর অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশকৃত ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছ জব্দ

উৎপল ঘোষ, যশোর জেলা প্রতিনিধি :
র‌্যাব ফোর্সেস আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির অপ্রতিরোধ্য উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে তরান্বিত করতে এবং সন্মানিত নাগরিকদের জন্য টেকসই নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনের আলোকে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে। এছাড়াও সমাজে মাদকের ভয়াল থাবার বিড়ম্বনার রোধকল্পে মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারসহ মাদকের বিরদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের দৃষ্টান্ত স্থাপন করে জনগনের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করে আসছে।
এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৬, সিপিসি-৩, যশোর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, চিংড়ি মাছে ইনজেকশনের মাধ্যমে জেলি পুশ করে মাছের ওজন বৃদ্ধি করে অস্বাস্থ্যকর ভাবে বাজারজাত করণের উদ্দেশ্যে বিপুল পরিমান জেলি পুশ চিংড়িমাছ নিয়ে শ্যামনগর টু শেরপুর গামী ০১ টি বাস যশোর মনিহার মোড় হয়ে শেরপুর যাইতেছে। উক্ত সংবাদের সত্যতা যাচাই ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইং ২৫/১২/২০২২ তারিখ সময় রাত ২২.০০ হতে ২৬/১২/২০২২ রাত ০০.১৫ ঘটিকা পর্যন্ত র‌্যাব-৬, সিপিসি-৩, যশোর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেঃ কমান্ডার এম নাজিউর রহমান ও এএসপি মোঃ নাজমুল হক এবং যশোর সদর উপজেলা মৎস্য অফিসার মোঃ জয়নুল আবেদীন এর সমন্বয়ে একটি আভিযানিক দল যশোর জেলার কোতয়ালী মডেল থানাধীন মনিহার মোড়ে অস্থায়ী চেকপোষ্ট বসিয়ে চিংড়ি মাছ ভর্তি হিমেল সিমান্ত বাস থামিয়ে চিংড়ি মাছে ইনজেকশনের মাধ্যমে জেলি পুশ করেছে কিনা তা চেক করেন। এ সময় উক্ত বাস হতে ককসিট ভর্তি ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছ, ইনজেকশনের মাধ্যমে জেলি পুশ করা প্রমাণ পাওয়া যায়। ককসিট ভর্তি ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছে অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশ করার প্রমান পাওয়ায় মৎস্য সুরক্ষা ও সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ সংশোধিত ২০০৯ এর ৪/৪ এবং ৩/৫ এর ধারা অনুযায়ী জব্দ পূর্বক ধ্বংশ করা হয়।র‌্যাব-৬, যশোর এর ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশকৃত ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছ জব্দ পূর্বক ধ্বংস করা হয়।

আপলোডকারীর তথ্য

যশোর অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশকৃত ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছ জব্দ

আপডেট সময় ০১:১৪:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০২২

উৎপল ঘোষ, যশোর জেলা প্রতিনিধি :
র‌্যাব ফোর্সেস আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির অপ্রতিরোধ্য উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে তরান্বিত করতে এবং সন্মানিত নাগরিকদের জন্য টেকসই নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনের আলোকে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে। এছাড়াও সমাজে মাদকের ভয়াল থাবার বিড়ম্বনার রোধকল্পে মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারসহ মাদকের বিরদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের দৃষ্টান্ত স্থাপন করে জনগনের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করে আসছে।
এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৬, সিপিসি-৩, যশোর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, চিংড়ি মাছে ইনজেকশনের মাধ্যমে জেলি পুশ করে মাছের ওজন বৃদ্ধি করে অস্বাস্থ্যকর ভাবে বাজারজাত করণের উদ্দেশ্যে বিপুল পরিমান জেলি পুশ চিংড়িমাছ নিয়ে শ্যামনগর টু শেরপুর গামী ০১ টি বাস যশোর মনিহার মোড় হয়ে শেরপুর যাইতেছে। উক্ত সংবাদের সত্যতা যাচাই ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইং ২৫/১২/২০২২ তারিখ সময় রাত ২২.০০ হতে ২৬/১২/২০২২ রাত ০০.১৫ ঘটিকা পর্যন্ত র‌্যাব-৬, সিপিসি-৩, যশোর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেঃ কমান্ডার এম নাজিউর রহমান ও এএসপি মোঃ নাজমুল হক এবং যশোর সদর উপজেলা মৎস্য অফিসার মোঃ জয়নুল আবেদীন এর সমন্বয়ে একটি আভিযানিক দল যশোর জেলার কোতয়ালী মডেল থানাধীন মনিহার মোড়ে অস্থায়ী চেকপোষ্ট বসিয়ে চিংড়ি মাছ ভর্তি হিমেল সিমান্ত বাস থামিয়ে চিংড়ি মাছে ইনজেকশনের মাধ্যমে জেলি পুশ করেছে কিনা তা চেক করেন। এ সময় উক্ত বাস হতে ককসিট ভর্তি ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছ, ইনজেকশনের মাধ্যমে জেলি পুশ করা প্রমাণ পাওয়া যায়। ককসিট ভর্তি ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছে অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশ করার প্রমান পাওয়ায় মৎস্য সুরক্ষা ও সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ সংশোধিত ২০০৯ এর ৪/৪ এবং ৩/৫ এর ধারা অনুযায়ী জব্দ পূর্বক ধ্বংশ করা হয়।র‌্যাব-৬, যশোর এর ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশকৃত ৬০০ কেজি চিংড়ি মাছ জব্দ পূর্বক ধ্বংস করা হয়।