ঢাকা ০৫:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শীতেও কেন সানস্ক্রিন ব্যবহার করবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বাইরে বের হওয়ার আগে নারী-পুরুষ সবারই সানস্ক্রিন লাগানো উচিত। সানস্ক্রিনে রয়েছে সান প্রোটেকশন ফ্যাক্টর বা এসপিএফ, যা রোদে পোড়া ও সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে। ঘরে, পুলের ধারে, কর্মস্থলে, ফ্লাইটে, জিমে এমনকি ঋতু পরিবর্তনের সময়ও সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে।

কেন ব্যবহার করবেন সানস্ক্রিন—

সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করে : অন্ধকারে ঢাকা দিনেও পৃথিবী সূর্যের রশ্মির প্রায় ৮০ শতাংশ গ্রহণ করতে পারে। এসপিএফ ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে।

স্কিন টোনকে সমান করে : সানস্ক্রিনের ব্যবহার ত্বককে ইউভি এক্সপোজার থেকে রক্ষা করে ত্বকের বিবর্ণতা এবং কালো দাগ রোধ করে এবং ত্বকের মসৃণতা বাড়ায়। এমনকি স্কিন টোন বজায় রাখতেও সাহায্য করে।

ট্যানিং এড়িয়ে যায় : যদিও সানস্ক্রিন সম্পূর্ণরূপে ট্যানিং বন্ধ করে না, এর ব্যবহার ত্বকের ক্ষতি না করে বাইরে বেশি সময় কাটতে সাহায্য করে।

ত্বকের ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমায় : তিনটি ভিন্ন ধরনের ত্বকের ক্যান্সার সূর্যের রশ্মির সংস্পর্শে আসার জন্য হয়। তাই বাড়ির ভেতরে থাকুন বা বাইরে, এসবের ঝুঁকি কমাতে ঘন ঘন একটি এসপিএফ ব্যবহার করুন।

অতিদ্রুত বার্ধক্যের হাত থেকে রক্ষা করে : সূর্যের আল্ট্রাভায়োলেট রশ্মি সময়ের আগেই চেহারায় বার্ধক্যের চিহ্ন নিয়ে আসে। নিয়মিত সানস্ক্রিনের ব্যবহার ত্বককে তরুণ দেখাবে। রোদে পোড়া, ত্বকের কালো দাগ, বলিরেখা এবং এমনকি ক্যান্সার থেকে শুরু করে সবকিছু থেকে রক্ষা পেতে সানস্ক্রিনের ব্যবহার অতুলনীয়।

আপলোডকারীর তথ্য

শীতেও কেন সানস্ক্রিন ব্যবহার করবেন

আপডেট সময় ১১:২৬:৫০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বাইরে বের হওয়ার আগে নারী-পুরুষ সবারই সানস্ক্রিন লাগানো উচিত। সানস্ক্রিনে রয়েছে সান প্রোটেকশন ফ্যাক্টর বা এসপিএফ, যা রোদে পোড়া ও সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে। ঘরে, পুলের ধারে, কর্মস্থলে, ফ্লাইটে, জিমে এমনকি ঋতু পরিবর্তনের সময়ও সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে।

কেন ব্যবহার করবেন সানস্ক্রিন—

সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করে : অন্ধকারে ঢাকা দিনেও পৃথিবী সূর্যের রশ্মির প্রায় ৮০ শতাংশ গ্রহণ করতে পারে। এসপিএফ ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে।

স্কিন টোনকে সমান করে : সানস্ক্রিনের ব্যবহার ত্বককে ইউভি এক্সপোজার থেকে রক্ষা করে ত্বকের বিবর্ণতা এবং কালো দাগ রোধ করে এবং ত্বকের মসৃণতা বাড়ায়। এমনকি স্কিন টোন বজায় রাখতেও সাহায্য করে।

ট্যানিং এড়িয়ে যায় : যদিও সানস্ক্রিন সম্পূর্ণরূপে ট্যানিং বন্ধ করে না, এর ব্যবহার ত্বকের ক্ষতি না করে বাইরে বেশি সময় কাটতে সাহায্য করে।

ত্বকের ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমায় : তিনটি ভিন্ন ধরনের ত্বকের ক্যান্সার সূর্যের রশ্মির সংস্পর্শে আসার জন্য হয়। তাই বাড়ির ভেতরে থাকুন বা বাইরে, এসবের ঝুঁকি কমাতে ঘন ঘন একটি এসপিএফ ব্যবহার করুন।

অতিদ্রুত বার্ধক্যের হাত থেকে রক্ষা করে : সূর্যের আল্ট্রাভায়োলেট রশ্মি সময়ের আগেই চেহারায় বার্ধক্যের চিহ্ন নিয়ে আসে। নিয়মিত সানস্ক্রিনের ব্যবহার ত্বককে তরুণ দেখাবে। রোদে পোড়া, ত্বকের কালো দাগ, বলিরেখা এবং এমনকি ক্যান্সার থেকে শুরু করে সবকিছু থেকে রক্ষা পেতে সানস্ক্রিনের ব্যবহার অতুলনীয়।