ঢাকা ০৯:০৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo রূপসায় ইটভাটার মাটিতে সড়ক বেহাল দশা : হালকা বৃষ্টিতে একের পর এক দূর্ঘটনা Logo জুয়েলারি খাতে আরোপিত শুল্ক হার কমানো ও আর্থিক প্রণোদনার প্রস্তাব বাজুসের Logo বাড়ির পাশে রাস্তার ঢালাই ঢালু হওয়ার অভিযোগে স্ত্রিকে কুপিয়ে জখম Logo দেবিদ্বারে ১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক উন্নয়নের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন Logo বড়পুকুরিয়া কয়লাখনিতে স্থানীয়দের ক্ষতিপূরণের দাবি Logo রূপগঞ্জে পূর্বশত্রুতার জেরে দুই জনকে পিটিয়ে আহত : থানায় পাল্টা পাল্টি অভিযোগ Logo শিশুর খতনায় অতিরিক্ত রক্তপাত, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারকে বদলি Logo বরুড়া উপজেলা যুব রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ১৫ সদস্যের কমিটি অনুমোদন Logo যশোরে ট্রাক ও মোটরসাইকেলে মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত -২, ঘাতক ট্রাক আটক Logo বনিকপাড়া’র বার্ষিক মহোৎসব শুরু

স্বপ্নের নতুন ঘর পেয়ে আনন্দে অশ্রুসিক্ত হলেন শোভা রাণী পাল

বাবা- মা, স্বামী সন্তান না থাকায় অর্ধাহারে অনাহারে কাটছে শোভা রাণীর সংসার। বাস করতেন এক জরাজীর্ণ ঘরে। ঝড়-তুফানের সময় ভয়ে থাকতেন। চোখের সামনে যখন প্রবল অন্ধকার, তখন বিষয়টি নজরে আসে প্রতিবেশী কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ এর কার্যনির্বাহী সদস্য বাবু কালীপদ মজুমদারের এবং মাত্র দুই সপ্তাহের মধ্যে নতুন টিনের ঘর তৈরি করে দেন তিনি।

এবিষয়ে কালীপদ মজুমদার বলেন আমার গ্রামের বাড়ি দেবিদ্বার উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়ন এর তালতলা (ললীতাশার) গ্রামে। শোভা রাণী পাল আমার প্রতিবেশী। সহায় সম্বলহীন শোভা রাণীর থাকার ঘরনাই, অর্ধাহারে অনাহারে দিনাতিপাত করছে, গ্রামের লোকমুখে এমন সংবাদ পাওয়ার পর আমি সরেজমিনে শোভা রাণী পাল এর বাড়িতে আসি, এবং দেখি তাহার থাকার ঘরটি জরাজীর্ণ, সেদিনই আমি তাতক্ষনিক নতুন ঘর তৈরি করার জন্য স্থানীয় প্রতিবেশী দুইজনকে নগদ টাকা দেই, আমি বরাবরই অসহায় মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করি, এবং আমার সধ্য পরিমান এমন সহযোগীতার হাত চলমান থাকবে।

নতুন ঘর পেয়ে চোখে ডেকেছে আনন্দ অশ্রুর বান। ঘর পেয়ে কেমন লাগছে, জিজ্ঞেস করায় শোভা রাণী পাল বলেন, স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারিনি যে, আমি এত অল্প দিনে নতুন ঘর পাবো। আমি সারাদিন কায়িক পরিশ্রম শেষে এখন আর জরাজীর্ণ ঘরে থাকতে হবে না। আমি মন থেকে প্রর্থনা করি বাবু কে যেন ভগবান ভাল রাখে।

এবিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সদস্য এবং তালতলার স্থানীয় বাসিন্দা মো. হুমায়ুন কবির বলেন বাবু কালীপদ মজুমদার সব সময় এলাকার অসহায় দরিদ্র মানুষের সহায়তা করেন, শোভা রাণী যখন আমাদের কাছে ঘর না থাকার বিষয়টি জানান তখন স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ গ্রামের লোকজনকে নিয়ে সরেজমিনে শোভা রাণীর বাড়িতে এসে দেখি আসলেই তাহার ঘর নাই, বিষয় টি বাবু কালীপদ মজুমদারকে আমরা জানানোর পর তিনি ওইদিনই নতুন ঘরের কাজ শুরু করার অর্থ প্রদান করেন, এমন মহৎ কাজরি সুন্দর ভাবে করতে পেরে আমরা খুব আনন্দিত।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: ফরিদ আহমেদ বলেন। শোভা রাণী পালকে বাবু কালীপদ মজুমদার একটি নতুন ঘর তৈরি করে দিয়েছেন আগামীতেও গরীব অসহায় মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসবে তিনি এমন অঙ্গিকার করেছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় দেবিদ্বার উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সদস্য মো. হুমায়ুন কবির এর সভাপতিত্বে এবং ইউপি সদস্য মো. ফরিদ আহমেদ এর উপস্থাপনায় ঘর উদ্বোধন এর সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য মো. জহিরুল কাইউম মুন্সীসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

রূপসায় ইটভাটার মাটিতে সড়ক বেহাল দশা : হালকা বৃষ্টিতে একের পর এক দূর্ঘটনা

স্বপ্নের নতুন ঘর পেয়ে আনন্দে অশ্রুসিক্ত হলেন শোভা রাণী পাল

আপডেট সময় ০৫:৫৬:৪২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

বাবা- মা, স্বামী সন্তান না থাকায় অর্ধাহারে অনাহারে কাটছে শোভা রাণীর সংসার। বাস করতেন এক জরাজীর্ণ ঘরে। ঝড়-তুফানের সময় ভয়ে থাকতেন। চোখের সামনে যখন প্রবল অন্ধকার, তখন বিষয়টি নজরে আসে প্রতিবেশী কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ এর কার্যনির্বাহী সদস্য বাবু কালীপদ মজুমদারের এবং মাত্র দুই সপ্তাহের মধ্যে নতুন টিনের ঘর তৈরি করে দেন তিনি।

এবিষয়ে কালীপদ মজুমদার বলেন আমার গ্রামের বাড়ি দেবিদ্বার উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়ন এর তালতলা (ললীতাশার) গ্রামে। শোভা রাণী পাল আমার প্রতিবেশী। সহায় সম্বলহীন শোভা রাণীর থাকার ঘরনাই, অর্ধাহারে অনাহারে দিনাতিপাত করছে, গ্রামের লোকমুখে এমন সংবাদ পাওয়ার পর আমি সরেজমিনে শোভা রাণী পাল এর বাড়িতে আসি, এবং দেখি তাহার থাকার ঘরটি জরাজীর্ণ, সেদিনই আমি তাতক্ষনিক নতুন ঘর তৈরি করার জন্য স্থানীয় প্রতিবেশী দুইজনকে নগদ টাকা দেই, আমি বরাবরই অসহায় মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করি, এবং আমার সধ্য পরিমান এমন সহযোগীতার হাত চলমান থাকবে।

নতুন ঘর পেয়ে চোখে ডেকেছে আনন্দ অশ্রুর বান। ঘর পেয়ে কেমন লাগছে, জিজ্ঞেস করায় শোভা রাণী পাল বলেন, স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারিনি যে, আমি এত অল্প দিনে নতুন ঘর পাবো। আমি সারাদিন কায়িক পরিশ্রম শেষে এখন আর জরাজীর্ণ ঘরে থাকতে হবে না। আমি মন থেকে প্রর্থনা করি বাবু কে যেন ভগবান ভাল রাখে।

এবিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সদস্য এবং তালতলার স্থানীয় বাসিন্দা মো. হুমায়ুন কবির বলেন বাবু কালীপদ মজুমদার সব সময় এলাকার অসহায় দরিদ্র মানুষের সহায়তা করেন, শোভা রাণী যখন আমাদের কাছে ঘর না থাকার বিষয়টি জানান তখন স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ গ্রামের লোকজনকে নিয়ে সরেজমিনে শোভা রাণীর বাড়িতে এসে দেখি আসলেই তাহার ঘর নাই, বিষয় টি বাবু কালীপদ মজুমদারকে আমরা জানানোর পর তিনি ওইদিনই নতুন ঘরের কাজ শুরু করার অর্থ প্রদান করেন, এমন মহৎ কাজরি সুন্দর ভাবে করতে পেরে আমরা খুব আনন্দিত।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: ফরিদ আহমেদ বলেন। শোভা রাণী পালকে বাবু কালীপদ মজুমদার একটি নতুন ঘর তৈরি করে দিয়েছেন আগামীতেও গরীব অসহায় মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসবে তিনি এমন অঙ্গিকার করেছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় দেবিদ্বার উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সদস্য মো. হুমায়ুন কবির এর সভাপতিত্বে এবং ইউপি সদস্য মো. ফরিদ আহমেদ এর উপস্থাপনায় ঘর উদ্বোধন এর সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য মো. জহিরুল কাইউম মুন্সীসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।