ঢাকা ০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লা চাঁদপুর সড়কে বরুড়া সীমানায় পুলিশের গাড়িতে ডাকাতি

  • বিশেষ প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় ০৫:৪৬:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৩
  • ১৪১ বার পড়া হয়েছে

ঈদে বাড়ি ফেরার পথে সদ্য পিআরএলএ (অবসর-উত্তর ছুটি) আসা সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহানের গাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার (১৯ এপ্রিল) রাত সোয়া একটার দিকে কুমিল্লার-চাঁদপুর সড়কের বরুড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী হাজী এন্টারপ্রাইজের সামনে ওই ডাকাতির ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

পুলিশ কর্মকর্তা মো. শাহজাহানের বাড়ি চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার রায়শ্রী গ্রামে।

লাকসাম ক্রসিং (লালমাই) হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোর্শেদুল আলম ভূঁইয়া বলেন, গাড়িতে পুলিশ কর্মকর্তা মো. শাহজাহান ও তার পরিবারের সদস্যরা ছিলেন। কুমিল্লা -চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশের এন্টারপ্রাইজের সামনে আসলে গাড়ির নিচে রড নিক্ষেপ করে ডাকাতের দল। পরে চালক গাড়ি থামাতেই চারদিক ঘিরে ফেলে সব লুট করে নিয়ে যায়। গাড়িতে পুলিশ সুপারের স্ত্রী, সন্তানেরাসহ ৫-৬ জন সদস্য ছিলেন। মামলাটি বরুড়া থানা দেখছে।

বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ফিরোজ হোসেন বলেন, ডাকাতদল তিন লাখ ৭০ হাজার নগদ টাকা ও বিদেশি ব্র‍্যান্ডের ঘড়ি ও আংটি নিয়ে যায়। সব মিলিয়ে ডাকাতরা ৪ লাখ টাকার জিনিসপত্র নিয়ে গেছে। এসময় পুলিশ কর্মকর্তার শরীরেও আঘাতের চেষ্টা করেন। এই ঘটনায় বরুড়া থানায় বৃহস্পতিবার ২০ এপ্রিল ২৩ ইং থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কুমিল্লা চাঁদপুর সড়কে বরুড়া সীমানায় পুলিশের গাড়িতে ডাকাতি

আপডেট সময় ০৫:৪৬:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৩

ঈদে বাড়ি ফেরার পথে সদ্য পিআরএলএ (অবসর-উত্তর ছুটি) আসা সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহানের গাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার (১৯ এপ্রিল) রাত সোয়া একটার দিকে কুমিল্লার-চাঁদপুর সড়কের বরুড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী হাজী এন্টারপ্রাইজের সামনে ওই ডাকাতির ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

পুলিশ কর্মকর্তা মো. শাহজাহানের বাড়ি চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার রায়শ্রী গ্রামে।

লাকসাম ক্রসিং (লালমাই) হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোর্শেদুল আলম ভূঁইয়া বলেন, গাড়িতে পুলিশ কর্মকর্তা মো. শাহজাহান ও তার পরিবারের সদস্যরা ছিলেন। কুমিল্লা -চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশের এন্টারপ্রাইজের সামনে আসলে গাড়ির নিচে রড নিক্ষেপ করে ডাকাতের দল। পরে চালক গাড়ি থামাতেই চারদিক ঘিরে ফেলে সব লুট করে নিয়ে যায়। গাড়িতে পুলিশ সুপারের স্ত্রী, সন্তানেরাসহ ৫-৬ জন সদস্য ছিলেন। মামলাটি বরুড়া থানা দেখছে।

বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ফিরোজ হোসেন বলেন, ডাকাতদল তিন লাখ ৭০ হাজার নগদ টাকা ও বিদেশি ব্র‍্যান্ডের ঘড়ি ও আংটি নিয়ে যায়। সব মিলিয়ে ডাকাতরা ৪ লাখ টাকার জিনিসপত্র নিয়ে গেছে। এসময় পুলিশ কর্মকর্তার শরীরেও আঘাতের চেষ্টা করেন। এই ঘটনায় বরুড়া থানায় বৃহস্পতিবার ২০ এপ্রিল ২৩ ইং থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।