ঢাকা ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

ধনী গরীবের কোন ভেদাভেদ ছিলো না মিলন মিয়ার কাছে : এমপি মুকুল

এম এ আকরাম

ভোলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভার সাবেক মেয়র সাইদুর রহমান মিলন মিয়া জীবদ্দশায় সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। তার কাছে ধনী-গরিবের কোন ভেদাভেদ ছিলেন না। দল-মত নির্বিশেষে মিলন মিয়ার কাছে সকলের সমান ছিলেন। কর্মগুণে আমাদের সকলের হৃদয়ে থাকবেন। বর্তমান সময়ের যারা রাজনীতি করে তাদের উচিত মিলন মিয়ার কর্মকাম্ড থেকে শিক্ষা নেয়া।

সোমবার (৮জুলাই) বোরহানউদ্দিন উপজেলা ও পৌর বিএনপির উদ্যোগে সদ্য প্রয়াত মিলন মিয়ার রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে মিলন মিয়াকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আলী আজম মুকুল এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, মিলন মিয়া এমন একজন মানুষ ছিলেন আজীবন যেভাবে মানুষকে ভালোবাসতেন ঠিক মানুষও তাকে ভালোবাসতেন। তাকে কেন্দ্র করে আমরা যেভাবে আওয়ামী লীগ-বিএনপি সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল একত্রিত হয়েছি এটি বোরহানউদ্দিনে নজির হয়ে থাকবে।

আরও বক্তব্য রাখেন, বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব রফিকুল ইসলাম, সাবেক ভিপি ইয়ারুল আলম লিটন, উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব এডভোকেট কাজী মোঃ আজম, মিলন মিয়ার ছোট ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান শাওন।

দোয়া অনুষ্ঠানে বোরহানউদ্দিন উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক হাসান হাওলাদার, সরোয়ার আলম খান, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান কবির, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদা তালুকদার, রাসেল আহমেদ, যুবলীগের সভাপতি ও ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তাজ উদ্দিন খান, ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল জোয়েব হাসান, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাইনুল ইসলাম, পৌর শ্রমিকদলের সভাপতি আলমগীর মাতব্বর, উপজেলা যুবদলের সভাপতি সিহাব উদ্দিন হাওলাদার, সাইদুর রহমান মিলন মিয়ার বড় ছেলে মেহেদী হাসান সাগরসহ পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের বর্তমান-সাবেক কাউন্সিলর, বিভিন্ন ইউনের চেয়ারম্যান, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা শেষে মিলন মিয়ার রুহের মাগফেরাত কামনা দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়

আপলোডকারীর তথ্য

নওগাঁ-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়ক নির্মাণ কাজের নানান অনিয়মের অভিযোগ

ধনী গরীবের কোন ভেদাভেদ ছিলো না মিলন মিয়ার কাছে : এমপি মুকুল

আপডেট সময় ১০:৩০:৪৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

এম এ আকরাম

ভোলার বোরহানউদ্দিন পৌরসভার সাবেক মেয়র সাইদুর রহমান মিলন মিয়া জীবদ্দশায় সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। তার কাছে ধনী-গরিবের কোন ভেদাভেদ ছিলেন না। দল-মত নির্বিশেষে মিলন মিয়ার কাছে সকলের সমান ছিলেন। কর্মগুণে আমাদের সকলের হৃদয়ে থাকবেন। বর্তমান সময়ের যারা রাজনীতি করে তাদের উচিত মিলন মিয়ার কর্মকাম্ড থেকে শিক্ষা নেয়া।

সোমবার (৮জুলাই) বোরহানউদ্দিন উপজেলা ও পৌর বিএনপির উদ্যোগে সদ্য প্রয়াত মিলন মিয়ার রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে মিলন মিয়াকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আলী আজম মুকুল এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, মিলন মিয়া এমন একজন মানুষ ছিলেন আজীবন যেভাবে মানুষকে ভালোবাসতেন ঠিক মানুষও তাকে ভালোবাসতেন। তাকে কেন্দ্র করে আমরা যেভাবে আওয়ামী লীগ-বিএনপি সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল একত্রিত হয়েছি এটি বোরহানউদ্দিনে নজির হয়ে থাকবে।

আরও বক্তব্য রাখেন, বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব রফিকুল ইসলাম, সাবেক ভিপি ইয়ারুল আলম লিটন, উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব এডভোকেট কাজী মোঃ আজম, মিলন মিয়ার ছোট ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান শাওন।

দোয়া অনুষ্ঠানে বোরহানউদ্দিন উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক হাসান হাওলাদার, সরোয়ার আলম খান, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান কবির, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদা তালুকদার, রাসেল আহমেদ, যুবলীগের সভাপতি ও ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তাজ উদ্দিন খান, ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল জোয়েব হাসান, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাইনুল ইসলাম, পৌর শ্রমিকদলের সভাপতি আলমগীর মাতব্বর, উপজেলা যুবদলের সভাপতি সিহাব উদ্দিন হাওলাদার, সাইদুর রহমান মিলন মিয়ার বড় ছেলে মেহেদী হাসান সাগরসহ পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের বর্তমান-সাবেক কাউন্সিলর, বিভিন্ন ইউনের চেয়ারম্যান, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা শেষে মিলন মিয়ার রুহের মাগফেরাত কামনা দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়