ঢাকা ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বড় ভাইয়ের সাথে নানী বাড়িতে ইফতার করা হলো না বোনের

বড় ভাই রহিম উদ্দীনের (১৫) সাথে ইফতারের দাওয়াত খেতে বাইসাইকেলে চড়ে নানিবাড়ি যাচ্ছিল বোন জাকিয়া (১১) আক্তার। রাস্তায় ট্রাক্টরকে সাইড দিতে গিয়ে বাইসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে জাকিয়া। এ সময় ঘটনাস্থলেই জাকিয়াকে ট্রাক্টরটি চাপা দিলে মারা যায় সে।

বুধবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের নাগরভিটা বিজিবি ক্যাম্পের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

জাকিয়া আক্তার উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের গড়িয়ালী গুচ্ছ গ্রামের নির্মাণশ্রমিক জাকারুল ইসলামের মেয়ে। এ ঘটনায় ট্রাক্টরচালক শাহিনকে আটক করেছেন স্থানীয়রা।

নিহত জাকিয়া আক্তারের বড় ভাই বাইসাইকেলচালক রহিম উদ্দীন বলে, ‘নানীর বাড়িতে ইফতারের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। আমি ও আমার ছোট বোন বাইসাইকেলে নানিবাড়ি কাশুয়া খাদেমগঞ্জ গ্রামে যাচ্ছিলাম। পথে নাগরভিটার ক্যাম্পের সামনে একটি ট্রাক্টরকে সাইড দিয়ে গিয়ে আমার বোন সাইকেল থেকে পড়ে যায়। তখন ট্রাক্টরের চাকা বোন জাকিয়ার বুকের ওপরে দিয়ে যায়।’

রহিম আরও বলে, ‘আমিসহ স্থানীয়রা জাকিয়াকে উদ্ধার করে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই। কিন্তু চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।’

এদিকে একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে শোকে কাতর বাবা জাকারুল ইসলাম বালিয়াডাঙ্গী থানার সামনে কান্নারত অবস্থায় বলেন, ‘কোনো দাবিদাওয়া নেই, মেয়েকে দাফন করতে চাই।’

বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল আনাম বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করেছে মেয়েটির বাবা জাকারুল। কারও কোনো অভিযোগ না থাকায় মেয়েটিকে দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বড় ভাইয়ের সাথে নানী বাড়িতে ইফতার করা হলো না বোনের

আপডেট সময় ০২:৩৮:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩

বড় ভাই রহিম উদ্দীনের (১৫) সাথে ইফতারের দাওয়াত খেতে বাইসাইকেলে চড়ে নানিবাড়ি যাচ্ছিল বোন জাকিয়া (১১) আক্তার। রাস্তায় ট্রাক্টরকে সাইড দিতে গিয়ে বাইসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে জাকিয়া। এ সময় ঘটনাস্থলেই জাকিয়াকে ট্রাক্টরটি চাপা দিলে মারা যায় সে।

বুধবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের নাগরভিটা বিজিবি ক্যাম্পের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

জাকিয়া আক্তার উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের গড়িয়ালী গুচ্ছ গ্রামের নির্মাণশ্রমিক জাকারুল ইসলামের মেয়ে। এ ঘটনায় ট্রাক্টরচালক শাহিনকে আটক করেছেন স্থানীয়রা।

নিহত জাকিয়া আক্তারের বড় ভাই বাইসাইকেলচালক রহিম উদ্দীন বলে, ‘নানীর বাড়িতে ইফতারের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। আমি ও আমার ছোট বোন বাইসাইকেলে নানিবাড়ি কাশুয়া খাদেমগঞ্জ গ্রামে যাচ্ছিলাম। পথে নাগরভিটার ক্যাম্পের সামনে একটি ট্রাক্টরকে সাইড দিয়ে গিয়ে আমার বোন সাইকেল থেকে পড়ে যায়। তখন ট্রাক্টরের চাকা বোন জাকিয়ার বুকের ওপরে দিয়ে যায়।’

রহিম আরও বলে, ‘আমিসহ স্থানীয়রা জাকিয়াকে উদ্ধার করে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই। কিন্তু চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।’

এদিকে একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে শোকে কাতর বাবা জাকারুল ইসলাম বালিয়াডাঙ্গী থানার সামনে কান্নারত অবস্থায় বলেন, ‘কোনো দাবিদাওয়া নেই, মেয়েকে দাফন করতে চাই।’

বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল আনাম বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করেছে মেয়েটির বাবা জাকারুল। কারও কোনো অভিযোগ না থাকায় মেয়েটিকে দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।