ঢাকা ১২:২৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরুড়া ইউপি মেম্বার কে কুপিয়ে গুরুতর আহত

মোঃ ইলিয়াছ আহমদ, বরুড়াঃ কুমিল্লার বরুড়ার ঝলম ইউনিয়ন মেম্বার আবুল বাসার কে রবিবার রাতে মনির নামে এক লোক প্রকাশ্যে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে বলে জানা যায়।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, রবিবার রাত ৮ টার দিকে ঝলম ইউনিয়ন ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার আবুল বাসার ঝলম উত্তর বাজার চা দোকানে বসে আছে। হঠাৎ করে ভংগুয়া গ্রামের আবদুল মমিন এর ছেলে মনির হোসেন (ওরফে মইন্না) দা নিয়ে এসে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে মেম্বার আবুল বাসার কে।
তাৎক্ষণিক রাতে আবুল বাসার কে বরুড়া সরকারী হাসপাতাল নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।
ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম জানান, পুলিশ ৩/৪ দিন আগে আবুল বাসার কে সাথে নিয়ে মইন্নার বাড়িতে যায়। আদালত এক মামলায় তার বাড়ির মালামাল ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছে। কেন আমার পরিষদের সদস্য আবুল বাসার পুলিশের সাথে তার বাড়িতে গেল এবং মালামাল ক্রোকের তালিকা স্বাক্ষী হল এই কথা বলে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে সে চলে যায়।
বরুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল বাহার মজুমদার বলেন, ঘটনা টি শুনিয়েছি। অভিযোগ আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে।

আপলোডকারীর তথ্য

বরুড়া ইউপি মেম্বার কে কুপিয়ে গুরুতর আহত

আপডেট সময় ১১:০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ ডিসেম্বর ২০২২

মোঃ ইলিয়াছ আহমদ, বরুড়াঃ কুমিল্লার বরুড়ার ঝলম ইউনিয়ন মেম্বার আবুল বাসার কে রবিবার রাতে মনির নামে এক লোক প্রকাশ্যে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে বলে জানা যায়।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, রবিবার রাত ৮ টার দিকে ঝলম ইউনিয়ন ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার আবুল বাসার ঝলম উত্তর বাজার চা দোকানে বসে আছে। হঠাৎ করে ভংগুয়া গ্রামের আবদুল মমিন এর ছেলে মনির হোসেন (ওরফে মইন্না) দা নিয়ে এসে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে মেম্বার আবুল বাসার কে।
তাৎক্ষণিক রাতে আবুল বাসার কে বরুড়া সরকারী হাসপাতাল নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।
ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম জানান, পুলিশ ৩/৪ দিন আগে আবুল বাসার কে সাথে নিয়ে মইন্নার বাড়িতে যায়। আদালত এক মামলায় তার বাড়ির মালামাল ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছে। কেন আমার পরিষদের সদস্য আবুল বাসার পুলিশের সাথে তার বাড়িতে গেল এবং মালামাল ক্রোকের তালিকা স্বাক্ষী হল এই কথা বলে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে সে চলে যায়।
বরুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল বাহার মজুমদার বলেন, ঘটনা টি শুনিয়েছি। অভিযোগ আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে।