ঢাকা ০৯:০৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo কুমিল্লা- সিলেট মহাসড়ক অবরুদ্ধ করে রেখেছে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা Logo ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা’র সহধর্মীনি এডভোকেট সিগমা হুদার ইন্তেকাল Logo আমতলীতে ২য় শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক আটক Logo বাঘাইছড়িতে ছাত্রলীগের প্রতিবাদ মিছিল Logo সরাইলে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ Logo ভাঙ্গায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-৩ আহত ৪০ Logo রূপসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন Logo শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ Logo সদরপুরে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া Logo যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাসিম এর মুত‍্যু বার্ষিকী পালিত

যশোরে বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার প্রেমিকা: আটক -৩

যশোর জেলা প্রতিনিধি : যশোরে প্রেমিকের সাথে বেড়াতে বের হয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন প্রেমিকা (১৯)। এ ঘটনায় কোতয়ালি থানায় প্রেমিকসহ ৪জনের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের জগহাটি গ্রামের একটি ডাটা ক্ষেতে।

আটককৃতরা হলেন, ওই মেয়ের প্রেমিক জগহাটি গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মোহাম্মদ সাকিব (২৮)একই গ্রামের সাজুল ইসলামের ছেলে বাচ্চু (৩২) ও কমলাপুর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে মহাব্বত (১৯)। এছাড়া এ মামলার অন‍্য আসামি জগহাটি গ্রামের আনিচুরের ছেলে আজিমুল ইসলাম পলাতক রয়েছে। আটককৃতদের মধ্যে মহব্বত শুক্রবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।
গণধর্ষণের শিকার ওই নারী অভিযোগ করে বলেন, সাকিবের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে তিনি তার নানা বাড়ি চুড়ামনকাটিতে ছিলেন। সাকিব তাকে মোবাইল করে বাসে উঠে বেলতলায় যেতে বললে তিনি সেখানে যান। সেখান থেকে জগহাটি তে-মাথায় গিয়ে বাকি আসামিদের দেখতে পান। তারা চারজন ও তিনি মোট ৫জন ইজিবাইকে করে বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়ান।
এরপর সন্ধ্যা ৬টার দিকে জগহাটি রুলপাড়ার একটি ডাটা ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে প্রথমে বাচ্চু, পরে সাকিব, আজিমুল ও মহব্বত তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে আজিমুল ও মহব্বত ফের তাকে ধর্ষণ করে। তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ে থাকলে বাচ্চু তার মোবাইল ফোনসেট নিয়ে যায়। তার উঠার কোনো শক্তি ছিলো না। তিনি চিৎকার দিলেও ফাঁকা স্থান হওয়ায় তার চিৎকার কেউ শুনতে পায়নি। পরে সাকিব তাকে উঠিয়ে একটি যাত্রী ছাউনির মধ্যে ফেলে রেখে চলে যায়। সেখানে তিনি মরার মতো পড়ে ছিলেন। আশপাশের লোকজনের সহযোগিতায় তিনি কোতয়ালি থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ দেন ।
কোতয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) একেএম শফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ওই মেয়েটি থানায় অভিযোগ দেয়ার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতে তিনজনকে আটক করে। এরা হলো সাকিব, বাচ্চু ও মহব্বত। আটককৃতদের মধ্যে মহব্বত আলী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এছাড়া অপর আসামিকে আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
আদালত সূত্রে জানাগেছে, মহব্বত জানিয়েছেন তিনি ইজিবাইক চালান। তার ইজিবাইকে ওই নারীসহ অন্যরাও ছিলেন। ঘটনাস্থলে গেলে ইজিবাইকের ভাড়া চাইলে তারা ভাড়া না দিয়ে ধর্ষণ করতে বলে। অন্যথায় হত্যার হুমকি দেয়। ফলে তিনিও ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। তাদের চারজনের মধ্যে তিনজন একাধিকবার ধর্ষণ করেছেন। আর বাচ্চু একবার ধর্ষণ করেছে বলে জবানবন্দিতে জানিয়েছেন মহব্বত।

আপলোডকারীর তথ্য

কুমিল্লা- সিলেট মহাসড়ক অবরুদ্ধ করে রেখেছে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা

যশোরে বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার প্রেমিকা: আটক -৩

আপডেট সময় ০৭:৫৫:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ মে ২০২৩

যশোর জেলা প্রতিনিধি : যশোরে প্রেমিকের সাথে বেড়াতে বের হয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন প্রেমিকা (১৯)। এ ঘটনায় কোতয়ালি থানায় প্রেমিকসহ ৪জনের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের জগহাটি গ্রামের একটি ডাটা ক্ষেতে।

আটককৃতরা হলেন, ওই মেয়ের প্রেমিক জগহাটি গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মোহাম্মদ সাকিব (২৮)একই গ্রামের সাজুল ইসলামের ছেলে বাচ্চু (৩২) ও কমলাপুর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে মহাব্বত (১৯)। এছাড়া এ মামলার অন‍্য আসামি জগহাটি গ্রামের আনিচুরের ছেলে আজিমুল ইসলাম পলাতক রয়েছে। আটককৃতদের মধ্যে মহব্বত শুক্রবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।
গণধর্ষণের শিকার ওই নারী অভিযোগ করে বলেন, সাকিবের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে তিনি তার নানা বাড়ি চুড়ামনকাটিতে ছিলেন। সাকিব তাকে মোবাইল করে বাসে উঠে বেলতলায় যেতে বললে তিনি সেখানে যান। সেখান থেকে জগহাটি তে-মাথায় গিয়ে বাকি আসামিদের দেখতে পান। তারা চারজন ও তিনি মোট ৫জন ইজিবাইকে করে বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়ান।
এরপর সন্ধ্যা ৬টার দিকে জগহাটি রুলপাড়ার একটি ডাটা ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে প্রথমে বাচ্চু, পরে সাকিব, আজিমুল ও মহব্বত তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে আজিমুল ও মহব্বত ফের তাকে ধর্ষণ করে। তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ে থাকলে বাচ্চু তার মোবাইল ফোনসেট নিয়ে যায়। তার উঠার কোনো শক্তি ছিলো না। তিনি চিৎকার দিলেও ফাঁকা স্থান হওয়ায় তার চিৎকার কেউ শুনতে পায়নি। পরে সাকিব তাকে উঠিয়ে একটি যাত্রী ছাউনির মধ্যে ফেলে রেখে চলে যায়। সেখানে তিনি মরার মতো পড়ে ছিলেন। আশপাশের লোকজনের সহযোগিতায় তিনি কোতয়ালি থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ দেন ।
কোতয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) একেএম শফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ওই মেয়েটি থানায় অভিযোগ দেয়ার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতে তিনজনকে আটক করে। এরা হলো সাকিব, বাচ্চু ও মহব্বত। আটককৃতদের মধ্যে মহব্বত আলী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এছাড়া অপর আসামিকে আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
আদালত সূত্রে জানাগেছে, মহব্বত জানিয়েছেন তিনি ইজিবাইক চালান। তার ইজিবাইকে ওই নারীসহ অন্যরাও ছিলেন। ঘটনাস্থলে গেলে ইজিবাইকের ভাড়া চাইলে তারা ভাড়া না দিয়ে ধর্ষণ করতে বলে। অন্যথায় হত্যার হুমকি দেয়। ফলে তিনিও ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। তাদের চারজনের মধ্যে তিনজন একাধিকবার ধর্ষণ করেছেন। আর বাচ্চু একবার ধর্ষণ করেছে বলে জবানবন্দিতে জানিয়েছেন মহব্বত।