ঢাকা ১১:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে ২টি মোটরসাইকেল ও সরঞ্জম উদ্ধার :গ্রেফতার -৩

  • যশোর প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় ০২:৫১:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৩
  • ১০৩ বার পড়া হয়েছে

যশোরে শার্শা ও কেশবপুরে পৃথক দুটি মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতারসহ ২ টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শার্শা থানাধীন নাভারণ বাজারে তালেব প্লাজার সামনে থেকে গত ২৫ জুন সকাল ১১.৩০ ঘটিকার সময় বেনাপোল সাদিপুরের মৃত আ: রহিমের পুত্র মোঃ হাফিজুর রহমানের এর ১টি এপাচি ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল, যশোর-ল-১২-২০১৬ চুরি হলে তিনি শার্শা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

এছাড়া কেশবপুর থানাধীন ত্রিমোহনী চাঁদড়া শ্বশাসঘাট এলাকা থেকে সিদ্দিক সরদার এর পুত্র মনিরুজ্জামান এর ১টি হিরো স্প্লেন্ডার ১০০ সিসি মোটরসাইকেল যশোর-হ-২০-৬০২২ চুরি তিনি কেশবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

ওসি ডিবি রুপন কুমার সরকার পিপিএম (বার) এর দিক-নির্দেশনায় এসআই মফিজুল ইসলাম পিপিএম এর নেতৃত্বে একটি চৌকশ টিম তদন্তে নেমে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে আন্তঃজেলা চোর চক্রের মূল হোতা একাধিক চুরি মামলার আসামী মোহাম্মদ আলী কে ইং ১৩ এপ্রিল বিকাল ১৮.০০ সময় যশোর খোলাডাঙ্গা এলাকা হতে ক্রমিক খ তে বর্নিত চোরাই ০১টি হিরো স্প্লেন্ডার মোটরসাইকেলসহ হাতে নাতে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তি তথ্য মতে তাকে নিয়ে কেশবপুর থানাধীন মঙ্গলকোট ও টিটা বাজিতপুর এলাকায় অভিযান চালিয চোর চক্রের আরো ০২ সদস্যকে গ্রেফতার করে উপরোল্লিখিত চোরাই এপাচি মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, আটককৃতরা পরস্পর যোগসাজসে যশোর ও আশপাশ জেলায় মোটরসাইকেল চুরি করে বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট ক্রয় বিক্রয় করে থাকে। গ্রেফতারকৃত আসামী মোহাম্মদ আলীর বিরুদ্ধে ১৬টির বেশী চুরি ও মাদক মামলা রয়েছে।

গ্রেফতকৃত আসামি সাতক্ষীরা জেলার শামনগর থানার বংশিপুর গ্রামের মৃত মজিদ গাজীর পুত্র মোহাম্মদ আলী (৪৫) ও যশোর কেশবপুর থানার মঙ্গলকোট গ্রামের সামাদ শেখের পুত্র মোঃ মিজানুর রহমান এবং বাজিতপুর গ্রামের ইনসার আলী সরদারের পুত্র মোঃ মজিবর সরদার (৩৬)। পুলিশ তাদের হেফাজতে থাকা ০১টি হিরো স্প্লেন্ডার ১০০ সিসি মোটরসাইকেল, ০১টি এপাচি ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল ও ২টি পুরাতন মাষ্টার চাবি উদ্ধার করা হয়।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

যশোরে ২টি মোটরসাইকেল ও সরঞ্জম উদ্ধার :গ্রেফতার -৩

আপডেট সময় ০২:৫১:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৩

যশোরে শার্শা ও কেশবপুরে পৃথক দুটি মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতারসহ ২ টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শার্শা থানাধীন নাভারণ বাজারে তালেব প্লাজার সামনে থেকে গত ২৫ জুন সকাল ১১.৩০ ঘটিকার সময় বেনাপোল সাদিপুরের মৃত আ: রহিমের পুত্র মোঃ হাফিজুর রহমানের এর ১টি এপাচি ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল, যশোর-ল-১২-২০১৬ চুরি হলে তিনি শার্শা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

এছাড়া কেশবপুর থানাধীন ত্রিমোহনী চাঁদড়া শ্বশাসঘাট এলাকা থেকে সিদ্দিক সরদার এর পুত্র মনিরুজ্জামান এর ১টি হিরো স্প্লেন্ডার ১০০ সিসি মোটরসাইকেল যশোর-হ-২০-৬০২২ চুরি তিনি কেশবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

ওসি ডিবি রুপন কুমার সরকার পিপিএম (বার) এর দিক-নির্দেশনায় এসআই মফিজুল ইসলাম পিপিএম এর নেতৃত্বে একটি চৌকশ টিম তদন্তে নেমে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে আন্তঃজেলা চোর চক্রের মূল হোতা একাধিক চুরি মামলার আসামী মোহাম্মদ আলী কে ইং ১৩ এপ্রিল বিকাল ১৮.০০ সময় যশোর খোলাডাঙ্গা এলাকা হতে ক্রমিক খ তে বর্নিত চোরাই ০১টি হিরো স্প্লেন্ডার মোটরসাইকেলসহ হাতে নাতে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তি তথ্য মতে তাকে নিয়ে কেশবপুর থানাধীন মঙ্গলকোট ও টিটা বাজিতপুর এলাকায় অভিযান চালিয চোর চক্রের আরো ০২ সদস্যকে গ্রেফতার করে উপরোল্লিখিত চোরাই এপাচি মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, আটককৃতরা পরস্পর যোগসাজসে যশোর ও আশপাশ জেলায় মোটরসাইকেল চুরি করে বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট ক্রয় বিক্রয় করে থাকে। গ্রেফতারকৃত আসামী মোহাম্মদ আলীর বিরুদ্ধে ১৬টির বেশী চুরি ও মাদক মামলা রয়েছে।

গ্রেফতকৃত আসামি সাতক্ষীরা জেলার শামনগর থানার বংশিপুর গ্রামের মৃত মজিদ গাজীর পুত্র মোহাম্মদ আলী (৪৫) ও যশোর কেশবপুর থানার মঙ্গলকোট গ্রামের সামাদ শেখের পুত্র মোঃ মিজানুর রহমান এবং বাজিতপুর গ্রামের ইনসার আলী সরদারের পুত্র মোঃ মজিবর সরদার (৩৬)। পুলিশ তাদের হেফাজতে থাকা ০১টি হিরো স্প্লেন্ডার ১০০ সিসি মোটরসাইকেল, ০১টি এপাচি ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল ও ২টি পুরাতন মাষ্টার চাবি উদ্ধার করা হয়।