ঢাকা ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রূপসায় আ.লীগ নেতা নজরুল ইসলামের দাফন সম্পন্ন

নাহিদ জামান, খুলনা প্রতিনিধিঃ
রূপসা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি, সাবেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম (৭০) ষ্টোক জনিত কারনে হৃদযন্তের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে, ২০ ডিসেম্বর বিকাল ৫:৩০ মিনিটে ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহিৱ রাজিউন। মরহুমের নামাজে জানাজা আজ ২১ ডিসেম্বর সকাল ১১ টায় তার বাড়ির সামনে চাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হাজার মানুষের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় উপস্থিত ছিলেন রূপসা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ভারপ্রাপ্ত) সহকারী কমিশনার ভুমি সাজ্জাদ হোসেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক কামরুজ্জামান জামাল, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ফ,ম সালাম, জাহাঙ্গির হোসেন মুকুল, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. ফরিদুজ্জামান, রূপসা থানা অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশারফ হোসেন, উপজেলা ভাইস চেযারম্যান আব্দু্ল্লাহ যোবায়ের, মাধ্যমিক সহকারি কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা, রূপসা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি খান শাহ্জাহান কবির প্যারিস, ফ,ম আলাউদ্দিন মাহমুদ, মোরশেদুল আলম বাবু, রূপসা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ইমদাদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম হাবিব, দপ্তর সম্পাদক আকতার ফারুক, প্রচার সম্পাদক আব্দুর গফুর খান, উপ প্রচার সম্পাদক সোহেল জুনায়েত, সমাজ সেবক ক্রিড়া বেক্তিত্ব আঃ মালেক, খুলনা জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবিএম কামরুজ্জামান, টিএসবি ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গির শেখ, ঘাটভোগ ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা ওহেদুজ্জামান মিজান, ঘাটভোগ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মনির হোসেন মোল্লা, নৈহাটি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার, জেলা মৎস্যজীবীলীগের সদস্য মুসা লস্কার, আল মামুন সরকার, শাহনাজ কবির টিংকু, খায়রুজ্জামান সজল প্রমূখ।

জানাজা অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম ছিলেন একজন জনদরদী সমাজসেবক এবং বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানে আদর্শের সৈনিক। তিনি জীবিত অবস্থায় বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় তার মায়ের নামে টাকা দান করে গেছেন। তিনি বেক্তিগত জীবনে অবিবাহিত ছিলেন। সমাজ সেবায় তিনি যে অবদান রেখে গেছেন তার অবদানের কথা মানুষ আজীবন মনে রাখবে। একজন ভালো মানুষ হিসাবে আল্লাহর কাছে একটাই চাওয়া তাকে বেহেস্তের সর্বচ্য স্থান দান করুন।
জানাযা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তাকে দাফন করা হয়।
জানাযা নামাজ পরিচালনা করেন এস এম মুশফিকুর রহমান।
মৃত্যুর পরে তিনি অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান।

আপলোডকারীর তথ্য

রূপসায় আ.লীগ নেতা নজরুল ইসলামের দাফন সম্পন্ন

আপডেট সময় ১১:০৫:৫৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২২

নাহিদ জামান, খুলনা প্রতিনিধিঃ
রূপসা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি, সাবেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম (৭০) ষ্টোক জনিত কারনে হৃদযন্তের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে, ২০ ডিসেম্বর বিকাল ৫:৩০ মিনিটে ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহিৱ রাজিউন। মরহুমের নামাজে জানাজা আজ ২১ ডিসেম্বর সকাল ১১ টায় তার বাড়ির সামনে চাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হাজার মানুষের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় উপস্থিত ছিলেন রূপসা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ভারপ্রাপ্ত) সহকারী কমিশনার ভুমি সাজ্জাদ হোসেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক কামরুজ্জামান জামাল, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ফ,ম সালাম, জাহাঙ্গির হোসেন মুকুল, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. ফরিদুজ্জামান, রূপসা থানা অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশারফ হোসেন, উপজেলা ভাইস চেযারম্যান আব্দু্ল্লাহ যোবায়ের, মাধ্যমিক সহকারি কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা, রূপসা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি খান শাহ্জাহান কবির প্যারিস, ফ,ম আলাউদ্দিন মাহমুদ, মোরশেদুল আলম বাবু, রূপসা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ইমদাদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম হাবিব, দপ্তর সম্পাদক আকতার ফারুক, প্রচার সম্পাদক আব্দুর গফুর খান, উপ প্রচার সম্পাদক সোহেল জুনায়েত, সমাজ সেবক ক্রিড়া বেক্তিত্ব আঃ মালেক, খুলনা জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবিএম কামরুজ্জামান, টিএসবি ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গির শেখ, ঘাটভোগ ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা ওহেদুজ্জামান মিজান, ঘাটভোগ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মনির হোসেন মোল্লা, নৈহাটি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার, জেলা মৎস্যজীবীলীগের সদস্য মুসা লস্কার, আল মামুন সরকার, শাহনাজ কবির টিংকু, খায়রুজ্জামান সজল প্রমূখ।

জানাজা অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম ছিলেন একজন জনদরদী সমাজসেবক এবং বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানে আদর্শের সৈনিক। তিনি জীবিত অবস্থায় বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় তার মায়ের নামে টাকা দান করে গেছেন। তিনি বেক্তিগত জীবনে অবিবাহিত ছিলেন। সমাজ সেবায় তিনি যে অবদান রেখে গেছেন তার অবদানের কথা মানুষ আজীবন মনে রাখবে। একজন ভালো মানুষ হিসাবে আল্লাহর কাছে একটাই চাওয়া তাকে বেহেস্তের সর্বচ্য স্থান দান করুন।
জানাযা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তাকে দাফন করা হয়।
জানাযা নামাজ পরিচালনা করেন এস এম মুশফিকুর রহমান।
মৃত্যুর পরে তিনি অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান।